২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১১:৪৫

ভালো আছে একসঙ্গে জন্ম নেয়া ৪ নবজাতক

 

ডেস্ক সিউজ : ঢাকার একটি বেসরকারি কোম্পানিতে স্বল্প বেতনে চাকরি করেন রংপুরে একসঙ্গে জন্ম নেয়া চার নবজাতকের বাবা মহসিন আলী। একসঙ্গে চার সন্তানের মুখ দেখে আনন্দে আত্মহারা হলেও তার স্বল্প আয়ে সন্তানদের লালন-পালন করা যে কষ্টকর তা বুঝতে পেরেছেন তিনি। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ চিকিৎসা ফ্রি করার ঘোষণা দিলেও সন্তানদের ভবিষ্যতের কথা ভেবে উদ্বেগ উৎকণ্ঠা যেন কমছে না মহসিনসহ অন্য স্বজনদের।

এদিকে দুই নবজাতকসহ তাদের মা নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে ভর্তি থাকলেও তারা শঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। মহসিন আলী সাংবাদিকদের জানান, তিনি রাজধানীর একটি বেসরকারি কোম্পানিতে স্বল্প বেতনে চাকরি করেন। যা আয় হয় তাই দিয়ে কোনো রকমে দিন চলে যায়। বিয়ের ৮ বছর পর একসঙ্গে চার সন্তানের মুখ দেখে খুশি হলেও তাদের নিয়ে আগামী দিনগুলো কিভাবে পাড়ি দেবেন সে চিন্তা যেন পিছু ছাড়ছে না। যত কষ্টই হোক সন্তানদের বড় করতে চান তিনি। এজন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করেছেন মহসিন।
গত শুক্রবার দুপুরে রংপুর নগরীর প্রাইম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের মধ্য দিয়ে দুই ছেলে ও দুই মেয়ে সন্তানের জন্ম দেন গাইবান্ধা সদর উপজেলার থান শিংপুর গ্রামের হানিফ আলীর মেয়ে হাসিনা আক্তার পপি (২৮)। হাসপাতালের গাইনি চিকিৎসক লায়লা হোসনা বানু দুপুর আড়াইটার দিকে ওই গৃহবধূর অস্ত্রোপচার করলে পরপর চার সন্তানের জন্ম হয়।
হাসপাতালের পরিচালক (প্রশাসন) ডা. মোজাম্মেল হক সাংবাদিকদের জানান, একসঙ্গে চার সন্তানের জন্ম নেয়ার ঘটনা তাদের হাসপাতালে এটাই প্রথম। হাসপাতাল থেকে তাদের চিকিৎসায় প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়া যাবতীয় ব্যয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বহন করবে।
চিকিৎসক লায়লা হোসনা বানু জানান, চার নবজাতকের মধ্যে এক ছেলে ও এক মেয়ের ওজন কিছুটা কম হওয়ায় তাদেরকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে রাখা হয়েছে। তবে তারা শঙ্কামুক্ত। এছাড়া প্রসূতির শারীরিক অবস্থাও ভালো আছে।
কিউএনবি/আয়শা/৯ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং/রাত ৮:২৫