১৬ই জুন, ২০১৯ ইং | ২রা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১২:৫৮

সম্পত্তিতে উত্তরাধিকার দাবী হিন্দু নারীদের

 

ডেস্ক নিউজ : হিন্দুর সম্পত্তিতে নারীর উত্তরাধিকার আইনের দাবীতে এক মতবিনিময় সভা হয়েছে। ৭ সেপ্টেম্বর শুক্রবার বিকেলে শহরের নিউমার্কেট সাংবাদিক বিপ্লবী রবি নিয়োগী সভাকক্ষে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভা শেষে সম্পা দত্তকে আহবায়ক এবং শিল্পী চন্দ, তনুশ্রী ভট্টাচার্য ও ইন্দ্রানী বিশ্বাস সুমাকে যুগ্ম আহবায়ক এবং পঞ্চমী দেব রুমাকে সদস্য সচিব করে ‘হিন্দু সম্পত্তিতে নারী অধিকার বাস্তবায়ন কমিটি’ নামে একটি আহবায়ক কমিটি এবং জয়শ্রী দাস লক্ষ্মীকে প্রধান উপদেষ্টা করে কমিটি গঠন করা হয়।

এতে প্রধান অতিথি’র বক্তব্য দেন নারী অধিকার কর্মী সঞ্চিতা তালুকদার। তিনি বলেন, পিতার সম্পত্তিতে পুত্রের মতো কন্যাকেও উত্তরাধিকার দিতে হবে। স্বামীর সম্পত্তিতে স্ত্রীকে শুধু ভোগদখলের অধিকার নয়, ওই সম্পত্তি হস্তান্তরে অধিকারও দিতে হবে। হিন্দু বিয়ে নিবন্ধন বাধ্যতামুলক করতে হবে। এজন্য রাষ্ট্রকে প্রায়াজনীয় আইন প্রণয়ন করতে হবে। রাজনৈতিক দলগুলোরও সদিচ্ছা থাকতে হবে। আগামী সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে এ দাবী তুলতে হবে। এ দাবীটি রাজনৈতিক দলগুলো আসন্ন নির্বাচনে তাদের নির্বাচনে ইসতেহারে তুলে ধরার দাবী জানান তিনি। এটি বাস্তবায়নে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তিনি উপস্থিত নারীদের উদ্দেশ্যে এ দাবীর প্রতি সমর্থন আছে কী না তা জানতে চাইলে উপস্থিত সকলেই হিন্দু সম্পত্তিতে নারীর সমঅধিকার দাবীর প্রতি একাত্মতা প্রকাশ করেন।

মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দানকালে শিক্ষিকা সম্পা দত্ত বলেন, বলা হয় ধর্ম যার যার, রাষ্ট্র সবার। কিন্তু কেন তাহলে উত্তরাধিকারের ক্ষেত্রে হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ-খ্রীস্টান কিংবা নানাভাবে ধর্মের ভিত্তিতে বিবেচনা করা হয়। এক্ষেত্রে রাষ্ট্রকে নারী-পুরুষ সকল ক্ষেত্রে সমানাধিকার নিশ্চিত করতে হবে। আমি ভাইয়ের মতো বাবার সম্পত্তিতে আমার অধিকার চাই। বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্রী পঞ্চমী দেব রুমা বলেন, বাবার সম্পত্তিতে আমার কেন অধিকার থাকবেনা। একই বাবা-মার সন্তান যদি ছেলে-মেয়ে দু’জনই হয়, তাহলে কেন বাবার সম্পত্তি থেকে মেয়েকে বঞ্চিত করা হবে। আমরা এমন প্রথার পরিবর্তন চাই। উত্তারাধিকার সম্পত্তিতে সমানাধিকার চাই।

সভার সভাপতি বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ শেরপুর জেলা শাখার সভানেত্রী জয়শ্রী দাস লক্ষ্মী বলেন, নারীর কোন বাড়ী নেই। জন্মের পর বাবার বাড়ী, বিয়ের পর স্বামীর বাড়ী, বৃদ্ধ বয়সে ছেলের বাড়ী। আমরা নারীর এমন পরিচয় চাইনা। আমরা চাই নারী তার নিজের নামে, নিজের কর্মে পরিচিত হবে। এজন্য নারীকে সম্পত্তিতে উত্তরাধিকার দিতে হবে। সংগ্রাম ছাড়া কোন অধিকার আদায় হয়না। আমাদেরকে সম্পত্তিতে উত্তরাধিকার আদায় করতে হলে আন্দোলন করার জন্য সবাইকে প্রস্তুত থাকতে হবে।

আমরা সম্পত্তিতে উত্তরাধিকার আইন চাই। সভায় আরও বক্তব্য রাখেন নারীনেত্রী আঞ্জুমান আরা যুথী, নারী উদ্যোক্তা আইরীন পারভীন, তুনশ্রী ভট্টাচার্য প্রমুখ। সভায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা জাসদ সভাপতি মনিরুল ইসলাম লিটন, সদর উপজেলা কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি সোলায়মান আহমেদ, শেরপুর প্রেসক্লাবের নব-নির্বাচিত সভাপতি শরিফুর রহমান, সঞ্জিব চন্দ বিল্টু, জনউদ্যোগ আহবায়ক আবুল কালাম আজাদ, আদিবাসী নেতা সুমন্ত বর্মন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে অর্ধশতাধিক হিন্দু নারী সহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মতবিনিয়ম সভা শেষে সম্পা দত্তকে আহবায়ক এবং শিল্পী চন্দ, তনুশ্রী ভট্টাচার্য ও ইন্দ্রানী বিশ^াস সুমাকে যুগ্ম আহবায়ক এবং পঞ্চমী দেব রুমাকে সদস্য সচিব করে ‘হিন্দু সম্পত্তিতে নারী অধিকার বাস্তবায়ন কমিটি’ নামে একটি আহবায়ক কমিটি এবং জয়শ্রী দাস লক্ষ্মীকে প্রধান উপদেষ্টা করে একটি উপদেষ্টা কমিটি গঠন করা হয়।

কিউএনবি/রেশমা/৮ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং/দুপুর ২:২৫

Please follow and like us:
0
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial