২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ১১ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৮:৫৫

ইবিতে বিএড ও এমএড কোর্স শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত

 

ড. মোঃ শাহিনুর রহমান ইবি প্রতিনিধি : ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমান বলেন, পৃথিবীর প্রতিটি মানুষই কোন না কোন প্রতিভার অধিকারী। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের সুপ্ত প্রতিভার বিকাশ ঘটিয়ে ব্যক্তিগত জীবনে এবং জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে দক্ষতার স্বাক্ষর রাখাতে শিক্ষকদের ভুমিকাই প্রথম।

এজন্য শ্রেনীকক্ষ ও শ্রেনী কক্ষের বাইরে পেশাগত জায়গায় মানবিক মুল্যবোধ, বিনয়ী, বড়দের সম্মান করবার ও বিবেক বোধ সম্পন্ন মানুষ তৈরীর করবার কারিগর হবার দায়িত্ব নিতে আমাদের এই শিক্ষকদের। তিনি বলেন প্রাইমারী ও সেকেন্ডারী পর্যায়ের কোমলমতি শিক্ষার্থীদের প্রথম পড়াশুনার হাতেখড়ি হয় আপনাদের কাছে। তাদেরকে আপনারা প্রথম থেকেই যেভাবে গড়ে তুলবেন তাঁরা সেভাবেই বেড়ে উঠবে। তিনি কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীদের মহান স্বাধীনতার চেতনায় বিশ্বাসী পাশাপাশি প্রগতিশীল মানুষ হিসাবে গড়ে তুলবার জন্য প্রশিক্ষনার্থীদের প্রতি আহবান জানান। শুক্রবার সকালে টি.এস,সি.সি’র বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান মিলনায়তনে ইনস্টিটিউট অব ইসলামিক এডুকেশন এন্ড রিসার্চ (আই.আই,ই.আর) এর পরিচালক প্রফেসর ড. মেহের আলী’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

এছাড়া বিশেষ অতিথি বক্তব্যে ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা বলেন শুধুমাএ ভালো রেজাল্ট ও অনেক কিছু জানলেই ভালো শিক্ষক হওয়া যায় না বরং ভালো শিক্ষক হতে হলে প্রথমত একজন ভালো মানুষ হতে হবে। শিক্ষার্থীদের যদি আমি মানবিক মুল্যবোধে দিক্ষীত করে স্বপ্নই দেখাতে না পারি তাহলে আমি আর্দশবান শিক্ষক হয় কি করে। তিনি শুধু সবোর্চ্চ জিপিও এর অধিকারী হবার জন্য চেষ্ঠা না করে বিবেকবোধ সম্পন্ন ভালো সৎ ও দক্ষ মানুষ তৈরী করবার জন্য শিক্ষকদের প্রতি আহবান জানান। প্রশিক্ষন কর্মশালয় কিনোট উপস্থাপন করেন ভারতের হায়দ্রাবাদের পন্ডিত জেহেরুলাল টেকনোলজি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক ড. বিনা বিশ্বাস।

প্রশিক্ষন কর্মশালা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রক্টর প্রফেসর ড. মোঃ মাহবুবর রহমান, প্রফেসর ড. এ কে এম মতিনুর রহমান, পরিবহন প্রশাসক প্রফেসর ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন, প্রফেসর ড. দেবাশীষ শর্মা, প্রফেসর ইয়াসিন আলীসহ বিএড ও এমএড প্রোগামোর নব্বই জন প্রশিক্ষনার্থী। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন বাংলা বিভাগের শিক্ষক ফৌজিয়া খাতুন।

 

কিউএনবি/অায়শা/৭ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং/সন্ধ্যা ৬:৪৮