১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৭:২৯

পুলিশের অনুমতি না নিয়ে বড়াইগ্রামে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের ৮ নেতা-কর্মী আটক

 

অমর ডি কস্তা,বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি : নাটোরের বড়াইগ্রামে থানা পুলিশের অনুমতি ছাড়া তারেক রহমানের কারামুক্তি দিবস পালন করায় থানা বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের ৮ নেতা-কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার দিবাগত রাতে অভিযান চালিয়ে মৌখাড়া এলাকার নিজ বাসভবন থেকে আটক করা হয় বড়াইগ্রাম শহর বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মজিদ সরকার ও থানা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল খালেক সরকারকে।

একই রাতে জলন্দা নিজ বাসভবন থেকে আটক করা হয় শহর ছাত্রদলের সভাপতি শাহাদত হোসেন শামীমকে। এ ছাড়াও পুলিশ একই রাতে নটাবাড়িয়া থেকে টিটু সেখ ও সজীব হোসেন এবং কালিকাপুর থেকে সাজদার হোসেন নামে ছাত্রদল কর্মী, গোয়ালফা থেকে আশরাফুল সেখ ও মৌখাড়া এলাকা থেকে আকতার হোসেন নামে ২জন যুবদল কর্মীকে আটক করে।

শহর ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক জাহিদ হাসান বিপুল মুঠো ফোনে জানান, পুলিশ রাত সাড়ে তিনটার দিকে চকবড়াইগ্রাম এলাকায় আমার বাড়িতেও এসেছিলেন আমাকে আটক করতে। কিন্তু আমি এ সময় অন্যত্র ছিলাম। সোমবার সন্ধ্যায় মৌখাড়া বাজারস্থ বিএনপি কার্যালয়ে তারেক রহমানের কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে কেক কাটা হয় এবং সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। মূলতঃ পুলিশের অনুমতি না নিয়ে এই অনুষ্ঠান করায় নেতা-কর্মীদের আটক করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

বড়াইগ্রাম থানা বিএনপি’র সভাপতি এ্যাড. আব্দুল কাদের জানান, আমরা এই গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই, সেই সাথে আটককৃত নেতা-কর্মীদের অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে জোর দাবি জানাচ্ছি।বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলিপ কুমার দাস জানান, জামায়েত-বিএনপি নেতা-কর্মীরা সংঘবদ্ধ হয়ে নাশকতা সৃষ্টি করার লক্ষে ঘরোয়া সভা করেছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে তাদেরকে আটক করা হয়েছে।

 

 

কিউএনবি/রেশমা/৪ঠা সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং/দুপুর ১২:০৬