২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৩:৩৫

প্রযুক্তি বদলে দিচ্ছে চিকিৎসার ধারণা

 

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক : প্রযুক্তির কল্যাণে আজ মানুষের জীবন অনেকটাই সহজ হয়ে গেছে। অনেক সময় ঘরে বসেই প্রযুক্তির সুবিধে কাজে লাগিয়ে মানুষ চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করছে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় চিকিৎসকের সাক্ষাতের সময় পেতে দেরি হলে কিংবা অত্যন্ত জরুরি কোন চিকিৎসার জন্য মানুষ ফোনে কিংবা ইন্টারনেটকে কাজে লাগিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থাপত্র গ্রহণ করে। উন্নত বিশ্বে এই ধরনের অনলাইন ভিত্তিক চিকিৎসা সেবা চালু রয়েছে, যেখানে নির্দিষ্ট পরিমাণ ফি দিয়ে ভিডিও কলের মাধ্যমে চিকিৎসা সেবা নেন। অনেকেই এই অগ্রগতিকে সাধুবাদ জানালেও প্রযুক্তির সাহায্যে চিকিৎসা সেবা নেওয়ার ক্ষতিকর দিকও রয়েছে।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক অনলাইন চিকিৎসা ব্যবস্থা ‘পুশ ডক্টর’ এর ওয়াইস সেইফতা বলেন, আমাদের এখানে খুব সহজেই চাহিদামাফিক চিকিৎসা সেবা পাচ্ছে। আজকাল অনলাইন সপ, টেলিভিশন এবং সামাজিক নেটওয়ার্কের সুবিধাকে কাজে লাগিয়ে দ্রুততম সময়ের মধ্যে চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করছে।
ভিডিও কলিংয়ের মাধ্যমে চিকিৎসা সেবা দেওয়ার পাশাপাশি অধুনা অনেকে অ্যাপের মাধ্যমে শারীরিক  পরীক্ষা নিরীক্ষার ব্যবস্থাও নিয়ে এসেছে। ‘বেবিলন হেলথ’ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এই ধরনের অ্যাপের মাধ্যমে যেসব পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হয় তা অনেক ক্ষেত্রে সঠিক হয়। গত ৫ বছরে যুক্তরাজ্যে সরাসরি চিকিৎসকের মাধ্যমে পরীক্ষার ফলাফল যেখানে ৭২ ভাগ নির্ভুল ছিল সেখানে অ্যাপের মাধ্যমে পরীক্ষার ফলাফল ছিল ৮১ শতাংশ নির্ভুল।
‘বেবিলন হেলথ’র মেডিকেল ডিরেক্টর ড. মোবাস্বের বাট বলেন, বেসরকারি অ্যাপ সেবা দাতা প্রতিষ্ঠাগুলো তুলনামূলকভাবে কম খরচে সেবা দিয়ে থাকে। জরুরি মুহূর্তে এবং নিয়মিত স্বাস্থ্যের খোঁজ-খবর নিতে বেশ কার্যকরী ভূমিকা রাখতে পারে এই অ্যাপ। লন্ডনের মুরফিল্ড আই হসপিটাল গুগলের সহযোগী প্রতিষ্ঠান ‘ডিপমাইন্ড’র সাথে চুক্তি করে বেবিলন হেলথ’র মতো অনলাইনের মাধ্যমে চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছে। অনলাইনে চোখের পরখিয় শতকরা ৯৪ ভাগ ক্ষেত্রেই সঠিক ফলাফল মিলেছে।-সিএনএন।
কিউএনবি/আয়শা/২রা সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং/সন্ধ্যা ৭:১০