২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ভোর ৫:৪৩

ট্রেন ভাড়া করে হানিমুনে ব্রিটিশ দম্পতি!

নিউজ ডেস্কঃ  হানিমুনের জন্য বাদশাহী আয়োজন। এমন অভিজ্ঞতা ভারতীয় রেলের এই প্রথম। মধুচন্দ্রিমার জন্য দক্ষিণ ভারতে এসেছিলেন ব্রিটিশ দম্পতি গ্রাহাম উইলিয়াম লিন্ড (৩০) ও সিলভিয়া প্লাসিক (২৭)। সিদ্ধান্ত নেন ‌যাবেন নীলগিরি পর্বতে। ‌যেমন ভাবা তেমনি কাজ।

মেট্টুপালায়ম থেকে উধাগামান্ডলম (উটি) প‌র্যন্ত ‌যাওয়ার জন্য ‌যোগা‌যোগ করেন দক্ষিণ রেলের সঙ্গে। ওই পথ ‌যাওয়ার জন্য অবশ্য দক্ষিণ রেলের সঙ্গে ‌যোগা‌যোগের কোনও প্রয়োজন ছিল না। কিন্তু তাদের উদ্দেশ্য ছিল অন্য।

রেল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে ‌যোগা‌যোগ করে গ্রাহাম ও সিলভিয়া ভাড়া করে ফেলেন একটি আস্ত ট্রেন। মেট্টুপালায়ম থেকে উধাগামান্ডলম প‌র্যন্ত ৪৮ কিলোমিটার রাস্তা ‌যাওয়ার জন্য রেলকে তাদের দিতে হয়েছে ৩ লাখ টাকা। দক্ষিণ রেলে এরকম ঘটনা এই প্রথম।

শুক্রবার রেল কর্তৃপক্ষ তাদের স্বাগত জানান মেট্টুপালায়ম স্টেশনে। এদিনই কুন্নুর স্টেশনে তারা ‌যখন নামেন তখনও তাদের অভ্যর্থনা জানান স্টেশন ম্যানেজার।

সংবাদ মাধ্যমকে লিন্ড জানিয়েছেন, হানিমুনের পরিকল্পনা করার সময় ঠিক করলাম ‌যাব নীলিগিরি। এর জন্য একটা স্টিম ইঞ্জিন ভাড়া করব। গোটা ট্রেনটাই হবে আমাদের। খুবই রোমান্টিক ব্যাপার বলে মনে হচ্ছিল।

রেল সূত্রে জানা যায়, ওই দম্পতি রেলের বিশেষ অনুমতির জন্য আবেদন করেন। প‌র্যটনে উৎসাহ দেওয়ার জন্য তাতে রাজিও হয়ে ‌যায় রেল। এরপরই রেলের সালেম ডিভিশনকে ওই বিশেষ ট্রেন চালানোর অনুমতি দেওয়া হয়। নীলগিরি মাউন্টেন সেকশনে ‌যাতায়াতকারী তিন বগির ওই ট্রেনটিতে আসন সংখা মাত্র ১২০টি।

ইউনেস্কো এই ট্রেনকে হেরিটেজ বলে ঘোষণা করেছে। ট্রেনটি চলে স্টিম ইঞ্জিনে। ‌যাত্রাপথে পড়ে ১৩টি টানেল, ঘন জঙল ও একাধিক ঝর্ণা। শুক্রবার ট্রেনটি মেট্টুপালায়ম থেকে ছেড়ে উধাগামান্ডলম বা উটি পৌঁছায় দুপুর ২টা ২০ মিনিটে।

কিউএনবি/নিল/ সেপ্টেম্বর,২০১৮/১৬ঃ৫৪