ব্রেকিং নিউজ
২১শে জানুয়ারি, ২০১৯ ইং | ৮ই মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৩:৪৯

খুলনা-৬ আসনে বিএনপি’র সম্ভাব্য দলীয় প্রার্থী কেন্দ্রীয় ছাত্রনেতা রফিকের ব্যাপক গণসংযোগ

 

মোঃ আব্দুল আজিজ,পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি : খুলনা-৬ আসনে দলীয় নেতাকর্মী ও তরুণ ভোটারদের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলে দিয়েছেন বিএনপি’র সম্ভাব্য দলীয় প্রার্থী কেন্দ্রীয় ছাত্রনেতা এসএম রফিকুল ইসলাম রফিক। তিনি টানা ১০ দিন নির্বাচনী এলাকা পাইকগাছা-কয়রার প্রায় সব কয়টি ইউনিয়নে ব্যাপক গণসংযোগ করেছেন।

ছাত্রনেতা রফিকুল ইসলাম বর্তমানে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি’র পদে রয়েছেন। তিনি দীর্ঘদিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীক ছাত্রদলের রাজনীতি করে আসছেন। ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় তরুণ উদীয়মান এ নেতা ২০১৪ সালের দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও দলীয় সম্ভাব্য প্রার্থী হিসাবে এলাকায় ব্যাপক গণসংযোগ ও নির্বাচনী কাজ করেন। আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে পাইকগাছা-কয়রার নির্বাচনী মাঠ গরম করে তুলেছেন ছাত্রনেতা রফিক।

তিনি গত ২০ সেপ্টেম্বর থেকে ২৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত টানা ১০ দিন নির্বাচনী এলাকার প্রায় সবকটি ইউনিয়নে গণসংযোগ করেন। দলীয় নেতাকর্মীদের পাশাপাশি তিনি সাধারণ ভোটারদের সাথেও মতবিনিময় করে এলাকার উন্নয়ন ও মানুষের সেবা করার প্রত্যয় ব্যাক্ত করে ভোট প্রার্থনা করেন। কেন্দ্রীয় নেতা ও তরুণ উদীয়মান প্রার্থী হিসাবে তরুণ ভোটারদের পাশাপাশি সব শ্রেণির মানুষের কাছে এসএম রফিকুল ইসলামের জনপ্রিয়তা বেড়েছে।যদিও এ আসন থেকে টানা পরপর কয়েকবার জামায়াত মনোনীত প্রার্থী নির্বাচন করে আসছেন।

কপিলমুনি ইউনিয়ন বিএনপি ও কৃষকদল নেতা আবু বক্কর সিদ্দিক জানান, এলাকার সন্তান ও কেন্দ্রীয় নেতা হিসাবে ছাত্রনেতা রফিক সাধারণ মানুষের কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। দলীয় নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষ চাই না বহিরাগত কেউ প্রার্থী হোক, স্থানীয় হিসাবে সবাই চাই রফিক আগামী নির্বাচনে প্রার্থী হোক। ছাত্রনেতা এসএম রফিকুল ইসলাম জানান, ভোট এবং সাংগঠনিক ভাবে বিএনপি’র চেয়ে জামায়াত অনেক দূর্বল সংগঠন।খুলনা-৬ আসনে বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কোন নেতা ও গ্রহণযোগ্য কোন প্রার্থী না থাকায় জামায়াত দীর্ঘদিন এ সুযোগটি কাজে লাগিয়েছে। তার মানে এই নয় এই আসনটি জামায়াতের জন্য নির্ধারণ করা রয়েছে।

বিএনপি’র সকল পর্যায়ের নেতৃবৃন্দও চাই আগামী নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী এ আসনে নির্বাচন করুক।আমি দীর্ঘদিন নির্বাচনী এলাকার মানুষের পাশে রয়েছি।দলীয় নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষের ব্যাপক সাড়া পেয়েছি।দলীয় মনোনয়ন পেলে খুলনা-৬ আসন থেকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হতে পারবো এ আত্মবিশ্বাস আমার রয়েছে।দলীয় নেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তিসহ নির্বাচনের লক্ষে কাজ করছি। বেগম জিয়াকে মুক্ত করে আগামী নির্বাচনে অংশ নিতে পারবো বলে আশা করছি।

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/ ১লা সেপ্টেম্বর,২০১৮/বিকাল ৫:৩১