১৬ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সন্ধ্যা ৬:২৬

বিমানবন্দরে রেগে পাওয়ার ব্যাঙ্ক ছুঁড়লেন যাত্রী, অতঃপর…!

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের দিল্লির ইন্দিরা গন্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিস্ফোরণ। তবে বিস্ফোরকের জন্য এই কাণ্ড ঘটেনি, মোবাইলের একটি পাওয়ার ব্যাঙ্কে ফেটে যাওয়ায় হয়েছে ছোট মাপের এই বিস্ফোরণ ঘটেছে। কিন্তু তাতে ফল হয়েছে উল্টো। বিস্ফোরণের উৎস বুঝতে না পারায় শেষ পর্যন্ত সেটিকে হ্যান্ড গ্রেনেড ভেবেছেন বিমানবন্দরের নিরাপত্তারক্ষীরা। যার ফলে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই বিমানবন্দর জুড়ে শুরু হয়ে যায় নাটক।

জানা যায়, এদিন সকালে দিল্লি বিমানবন্দরে সিকিউরিটি চেকিং’র সময় মালবিকা তিওয়ারি নামে এক ৫৫ বছরের নারী ব্যাগে একটি পাওয়ার ব্যাঙ্ক ধরা পড়ে। বিমানবন্দরের নিয়ম অনুযায়ী, পাওয়ার ব্যাঙ্ক চেক-ইন ব্যাগেজে রাখার নিয়ম নেই। তাই সেটি মালবিকাকে তার সঙ্গে থাকা হ্যান্ডব্যাগে রাখতে বলা হয়। 

অভিযোগ, এতেই রেগে যান তিনি। পাওয়ার ব্যাঙ্কটি দেওয়ালে ছুঁড়ে মারেন। আর তাতে সেটি ভেঙে ছোট বিস্ফোরণ ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, বিস্ফোরণের শব্দের সঙ্গে আলোর ঝলকানি হয় ও তার থেকে ধোঁয়া বের হতে থাকে। নিরাপত্তারক্ষীরা সেটাকে দেখে একটি হ্যান্ড গ্রেনেড বলে মনে করেছিলেন। কিছুক্ষণের জন্য হুড়োহুড়ি পড়ে যায় ইন্দিরা গান্ধী বিমানবন্দরে। সেই নারীকে গ্রেফতার করা হয়।

পরে অবশ্য দেখা যায় জিনিসটি একটি পাওয়ার ব্যাঙ্কই। দেওয়ালে ধাক্কা লাগার কারণে তা কোনওভাবে ফেটে যায়। জানা গেছে, মালবিকা তিওয়ারি দিল্লির ডিফেন্স কলোনির বাসিন্দা। তিনি স্পাইসজেটের বিমানে ধর্মশালা যাচ্ছিলেন। তার বিরুদ্ধে নিরাপত্তায় বিঘ্ন ঘটানো ও বিস্ফোরক দ্রব্যকে অবহেলা করার মামলা করা হয়। পরে অবশ্য তিনি জামিনে মুক্তি পেয়ে যান।

 

 

কিউএনবি/রেশমা/৩১শে আগস্ট,২০১৮ ইং/দুপুর ১২:৫৭