১৭ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৪:৪৩

এক বছর আগেই নিরাপত্তা চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন সুবর্ণা নদী

ডেস্ক নিউজ: দুর্বৃত্তদের হামলায় খুন হওয়া বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ‘আনন্দ টিভি’র পাবনা প্রতিনিধি সুবর্ণা নদী (৩২) এক বছর আগেই জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছিলেন। গতকাল মঙ্গলবার রাত পৌনে ১১টার দিকে শহরের রাধানগর মজুমদারপাড়ায় সুবর্ণা নদীকে হত্যা করা হয়। হামলাকারীদের পরিচয় সম্পর্কে এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। 

২০১৭ সালের ২২ জুলাই পাবনায় সংবাদ সম্মেলনে সুবর্ণা নদী বলেন, স্বামী রাজীব হোসেন ও শ্বশুর আবুল হোসেনের ভাড়াটিয়া গুণ্ডাবাহিনী তাকে নির্যাতন ও হত্যার চেষ্টা করছেন। ২০১৬ সালে ৬ জুন মাসের পাবনার শহরের রাজীব হোসেনের সাথে ৫ লাখ ১ টাকা দেনমোহর ধার্য করে বিয়ে হয় তার। একপর্যায়ে তার কাছে ৫ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে স্বামী। দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় তাকে প্রচণ্ড মারধর করে। ২০১৭ সালের ৩১ মে আমার স্বামী তাকে বাড়ি থেকে বের করে দেয়। ৪ জুন পাবনা সদর থানায় নারী-শিশু ও যৌতুক আইনে মামলা করেন তিনি।এছাড়া পাবনা জজ কোর্টে যৌতুক মামলা করেন। 

২০১৭ সালের ৩ অক্টোবর বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (ক্রাব) মিলনায়তনেও সংবাদ সম্মেলন করেন সুবর্ণা নদী। সেখানে তিনি বলেন, শ্বশুর-শাশুড়ি ও স্বামী সব মামলা তুলে নেয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ ও হুমকি প্রদর্শন করছেন। মামলা তুলে না নিলে তাকে মেরে ফেলার হুমকিও দেন। পরে রাস্তায় ভাড়াটিয়া গুণ্ডা দিয়ে গলায় চাকু ধরে মামলা তুলে নিবে বলে শাসিয়ে যায়।

কিউএনবি/অনিমা/২৯শে আগস্ট, ২০১৮ ইং/দুপুর ১:৪৩