২০শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সন্ধ্যা ৭:৪২

নাব্যতা সংকটে কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল এখনও ব্যাহত ॥ লঞ্চ ও স্পীডবোটে যাত্রীদের প্রচন্ড ভীড়

 

আব্দুল্লাহ আল মামুন,মাদারীপুর। প্রতিনিধি : মঙ্গলবার সকাল থেকে ঈদ শেষে কর্মস্থল ঢাকামুখী যাত্রীদের প্রচন্ড ভীড় রয়েছে কাঁঠালবাড়ী ঘাটে। গত কয়েকদিন ধরে নাব্যতা সংকটের কারণে কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হওয়ায় ঢাকাগামী যাত্রীরা লঞ্চ ও স্পীডবোটে পার হচ্ছে। যাত্রী চাপ বেশি থাকায় ঘাটের লঞ্চ ও স্পীডবোট অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে শিমুলিয়া ঘাটের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাচ্ছে। নব্যতার কারনে এখনও বন্ধ রয়েছে রো-রো ও ডাম্প ফেরি চলাচল। শুধুমাত্র কে-টাইপ ও মিডিয়াম ৯টি ফেরি চলাচল করছে। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন দক্ষিনাঞ্চলের ২১ জেলার যাত্রী ও চালকরা। ফেরি পারাপারের অপেক্ষায় প্রায় ৫ শতাধিক যানবাহন ঘাট এলাকায় আটকে আছে।

ঘাট এলাকায় ঢাকাগামী যাত্রী নোমান আহমেদ জানান, ফেরী কম চলায় এবং প্রচুর ভীড় থাকায় গাড়ি ড্রাইভারের কাছে রেখে স্পীডবোটে পার হচ্ছি। নদীর নাব্যতা দূর করার জন্য ঘাট কর্তৃপক্ষের অনেক আগে থেকেই ড্রেজিং করার দরকার ছিল। নদী ড্রেজিং করা থাকলে আমাদের এ দুর্ভোগ পোহাতে হতো না। লঞ্চে উঠা মামুন নামের এক যাত্রী বলেন, প্রচন্ড ভীড় লঞ্চগুলোতে। ধারন ক্ষমতার চেয়ে কয়েকগুন বেশি যাত্রী নিয়ে লঞ্চ চলাচল করছে। এ রুটে লঞ্চের পরিমান আরো বাড়ানো উচিত।

বিআইডব্লিউটিসির কাঠালবাড়ী ফেরি ঘাটের ব্যবস্থাপক আব্দুস সালাম মিয়া জানান, মঙ্গলবার সকাল থেকে ঢাকামুখী যাত্রীদের চাপ বৃদ্ধি পেয়েছে কাঁঠালবাড়ী ঘাটে। নদীতে ড্রেজিং কাজ চলমান থাকায় গত দুই সপ্তাহ ধরে এই নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। অন্য চ্যানেল দিয়ে স্বল্প পরিসরে কয়েকটি ফেরি চলাচল করলেও সেখানে প্রবল ¯সোতের মুখে পড়ছে ফেরিগুলো। এতে ব্যাহত হচ্ছে এই নৌরুটে ফেরি চলাচল। বতর্মানে ২১টি ফেরির মধ্যে চলছে ৯টি ফেরি

 

 

 কিউএনবি/আয়শা/২৮শে আগস্ট, ২০১৮ ইং/রাত ৮:৪৫