১৪ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ২:৫৭

গোসাইরহাটে মাদকের অর্থ যোগানদাতা ও ব্যবসায়ী ১০ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার

 

খোরশেদ আলম বাবুল,শরীয়তপুর প্রতিনিধি : শরীয়তপুরের গোসাইরহাটে মাদক ব্যবসায় অর্থ যোগানদাতা ও এক মাদক ব্যবসায়ী ১০ কেজি গাঁজা সহ গ্রেফতার হয়েছে।আজ সোমবার সকাল সোয়া ৮টায় উপজেলার মহেশ্বরপট্টি গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে মাদক ব্যবসায়ী ও অর্থ যোগানদাতা আ. ছাত্তার মালকে (৫০) গাঁজা সহ গ্রেফতার করা হয়।এ সময় অপর মাদক ব্যবসায়ী গাঁজা নিয়ে পালিয়ে যায়।এ বিষয়ে দুই জনকে আসামী করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে গোসাইরহাট থানায় মামলা হয়েছে।

মামলার এফ.আই.আর ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, গোসাইরহাট উপজেলার মহেশ্বরপট্টি গ্রামের মৃত জব্বার মালের ছেলে আ. ছাত্তার মাল (৫০) দীর্ঘদিন যাবৎ মাদক ব্যবসায় অর্থ যোগান ও মাদক ব্যবসা করে আসছে।শতাধিক খুচরা মাদক ব্যবসায়ীর মাধ্যমে উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে মাদক সরবরাহ করে থাকে এ মাদক ব্যবসায়ী।

আজ (২৭ আগষ্ট) সোমবার সকালে আ. ছাত্তার মাল নিজ বাড়িতে বসে একই এলাকার মৃত আহম্মদ মালের পুত্র হাসান মালের (৪৮) নিকট গাঁজা বিক্রি করে। সংবাদ পেয়ে গোসাইরহাট থানা পুলিশের একটি দল ছাত্তার মালের বাড়ি যায়।পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে হাসান মাল গাঁজা সহ পালিয়ে যায়।

এ সময় ছাত্তার মালকে গ্রেফতার করে পুলিশ।পরবর্তীতে ছাত্তার মালের দেখানো মতে নিজ বাড়ির কাচারী ঘর থেকে সাদা প্লাষ্টিকের বস্তার ভিতরে নিল রঙ্গের পরিথিনে মোড়ানো (১০ প্যাকেটে) ১ কেজি গাঁজা উদ্ধার করে পুলিশ।এ বিষয়ে গ্রেফতারকৃত আসামী ছাত্তার মাল ও পলাতক আসামী হাসান মালের বিরুদ্ধে মাদকনিয়ন্ত্রন আইনে মামলা হয়েছে।

গোসাইরহাট থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মেহেদী মাসুদ বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি মহেশ্বরপট্টি গ্রামে একটি বাড়িতে গাঁজা ক্রয়-বিক্রয় হচ্ছে।সেখানে গিয়ে ছাত্তার মাল নামে এক গাঁজা ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হই।এ সময় হাসান মাল নামে অপর এক আসামী গাঁজাসহ পালিয়ে যায়।এ বিষয়ে ১৯৯০ সনের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা হয়েছে।পলাতক আসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

 

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/২৭শে আগস্ট, ২০১৮ ইং/সন্ধ্যা ৭:০০