২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৮:১৪

অমানবিকতার পরিচয় দিয়েছে সরকার : বিএনপি

 

ডেস্কনিউজঃ ঈদের দিনও কারারুদ্ধ সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে বাসার তৈরি খাবার খেতে না দিয়ে সরকার অমানবিকতার পরিচয় দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি।

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

রিজভী বলেন, সরকার আবারও একতরফা নির্বাচনের পাঁয়তারা করছে, যা এবার প্রতিহত করবে জনগণ। অবিলম্বে আটক শিক্ষার্থী এবং বিএনপি নেতাকর্মীদের মুক্তি দাবি করেন রিজভী।

বিএনপি বলেন বলেন, ‘অন্যায় সাজায় কারাবন্দি দেশনেত্রীর সঙ্গে গতকাল ঈদের দিন দলের সিনিয়র নেতাদের দেখা করতে দেওয়া হয়নি। অনেক দেরিতে প্রায় আড়াই ঘণ্টা কারাফটকের বাইরে আত্মীয়স্বজনদের অপেক্ষা করিয়ে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে দেখা করতে দিলেও বাসা থেকে সঙ্গে আনা রান্না করা খাবার ঢুকতে দেওয়া হয়নি। সকাল থেকে না খেয়ে অভুক্ত অবস্থায় দেশনেত্রী অপেক্ষা করছিলেন স্বজনদের সঙ্গে নিয়ে একসঙ্গে আহার করবেন, অনেক দিন পর প্রিয় নাতনিকে সঙ্গে নিয়ে খাবেন। কিন্তু কারা কর্তৃপক্ষ সরকারকে খুশি করতেই খাবার নিতে দেয়নি। অভুক্ত খালেদা জিয়া বুকফাটা হাহাকারে নাতনি ও আত্মীয়দের সঙ্গে খাবার খেতে পারলেন না। স্বজনদের সঙ্গে নিয়ে একসঙ্গে খাওয়ার যে আশায় তিনি সারা দিন অভুক্ত থাকলেন, সে আশা তাঁর পূরণ হলো না। বাবাহারা নাতনিও এক বিশাল শূন্যতা নিয়ে দাদির ওপর সরকারি নির্দয়তার বীভৎসরূপ দেখে বুকফাটা কান্না নিয়ে ফিরে আসে।’

আরেক প্রসঙ্গে রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘ওবায়দুল কাদের (সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী) সাহেবকে সুস্পষ্টভাবে বলে রাখি, ৫ জানুয়ারির মতো আবারও একতরফা নির্বাচন জনগণ প্রতিহত করবেই। শূন্য মাঠে আর খেলতে দেওয়া হবে না। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনেই নির্বাচন হবে, দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার নেতৃত্বেই বিএনপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে।’ তিনি আরো বলেন, ‘ওবায়দুল কাদের সাহেবরা যে একতরফা নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছেন, তার আলামতও তাঁরা দেখাচ্ছেন দেশবরেণ্য আইনজীবী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদকে নিজ বাড়িতে কয়েক দিন অবরোধ করে রাখার পর গতকাল ঈদের দিনে তাঁর বাবা-মায়ের কবর জিয়ারত করতে না দেওয়ায় মাধ্যমে।’

 

 

কিউএনবি/বিপুল/২৩শে আগস্ট, ২০১৮ ইং/বিকাল ৪:২১