২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৪:৫৩

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে জমে উঠেছে কোরবানীর পশুরহাট

 

এম শিমুল খান,গোপালগঞ্জ : পবিত্র ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে শেষ মুর্হূতে কাশিয়ানী উপজেলার বিভিন্ন স্থানে কোরবানীর পশুরহাট জমে উঠেছে। ঈদ যতই ঘনিয়ে আসছে ততোই বাড়ছে ক্রেতাদের উপস্থিতি ও গরু-ছাগলের আমদানি। ক্রেতারা যে যার সামর্থ অনুযায়ী পশু ক্রয় করার জন্য কোরবানীর পশুর হাটগুলোতে ভিড় জমাচ্ছেন।তবে গো-খাদ্যের তীব্র সংকটের কারণে পশুকে প্রতিদিন খাওয়ানো ও পরিচর্যার কথা চিন্তা করে অনেকে শেষ মূর্হুতে কোরবানীর পশু কিনছেন।

সরেজমিনে উপজেলার বৃহত্তম গরুরহাট পরানপুর হাট ঘুরে দেখা গেছে ঈদ উপলক্ষে হাটে প্রচুর পরিমাণ দেশি পশু আমদানি হয়েছে। ফলে গরুর দাম সাধারণ ক্রেতাদের নাগালের মধ্যে রয়েছে বলে অনেকেই মনে করছেন। আবার অনেকে বলছেন, গত বছরের তুলনায় এবার গরুর দাম কিছুটা চড়া। তবে এবার ছাগলের দাম একটু চড়া।গো-খামারীরা শহিদুল আলম জানান, খৈল, ভূসি, খুদ, কুঁড়া, খড়সহ গো-খাদ্যের মূল্য বৃদ্ধি পেলেও সে তুলনায় গরুর দাম তেমন বাড়েনি। আর এ কারণে লাভের মুখ দেখা অনেকটা অনিশ্চিত।

গরু কিনতে আসা উপজেলার ফুকরা গ্রামের আবেদ আলী মোল্যা জানান, গত বছরের তুলনায় এবার কোরবানী পশুর দাম কিছুটা চড়া।
গরুর হাটগুলোতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।কিন্তু জাল টাকার আতঙ্কে রয়েছেন ক্রেতা-বিক্রেতা।এ সব পশুরহাটে জাল টাকা শনাক্ত করণে প্রশাসনের তেমন কোন উদ্যোগ গ্রহণ করতে দেখা যায়নি।

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/১৮ই আগস্ট, ২০১৮ ইং/বিকাল ৫:৪২