১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৩রা আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সন্ধ্যা ৭:৪৪

ঈদ উপলক্ষ্যে দু’সপ্তাহের বিশেষ পরিকল্পনা র‌্যাবের

 

ডেস্কনিউজঃ আসন্ন পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে দুই সপ্তাহের নিরাপত্তা পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে র‍্যাব। ১৩ আগস্ট থেকে শুরু হয়ে এ কার্যক্রম চলবে ২৬ আগস্ট পর্যন্ত।

শনিবার দুপুরে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এমন তথ্য জানান র‌্যাব মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজীর আহমেদ।

এসময় তিনি আরও জানান, দুই সপ্তাহের নিরাপত্তা পরিকল্পনার অংশ হিসেবে সারাদেশে ২৪৫টি পেট্রোল টিম মোতায়েন আছে, রিজার্ভ স্ট্রাইকিং ফোর্স রয়েছে ৫৬টি। ঢাকার এক্সিট পয়েন্টগুলোয় বসানো হয়েছে ২০টি অস্থায়ী ক্যাম্প। মেঘনা ও মধুমতি ব্রিজে অস্থায়ী ক্যাম্প রয়েছে। দৌলতিয়া, মাওয়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

এছাড়া র‌্যাব হেডকোয়ার্টারের ফেসবুক পেজে চার ঘণ্টা পরপর সারাদেশের সব পথের অবস্থার আপডেট দেয়া হবে। ১৪ ব্যাটালিয়নের ফেসবুক পেজেও তাদের আওতাভুক্ত এলাকার আপডেট থাকবে। প্রয়োজন মনে করলে জনসাধারণ আপডেট দেখে বের হতে পারেন। সব পথের অবস্থা জেনে সবাই এই সুযোগ গ্রহণ করবেন।

বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘মাওয়ায় নাব্য সমস্যা আছে। যে কারণে বড় ফেরিগুলো চলাচল করতে পারছে না। ড্রেজিং করে নাব্য ফেরানোর কাজ চলছে। সদরঘাট এলাকায় বাড়ির ফেরার জন্য মানুষের চাপ ছিল ও লঞ্চগুলোতে ওভারলোডিং চোখে পড়েনি। গার্মেন্টসগুলো এখনও চালু রয়েছে। তাদের ছুটি হওয়ার পর কিছুটা চাপ বাড়বে। আমরা সেই চাপ সামলে নেওয়ার জন্য প্রস্তুত আছি। সারাদেশে ৬৮টি ট্রেন আপ-ডাউন করছে।’

কিশোরগঞ্জ ও দিনাজপুর ঈদের জামাতে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণের পাশাপাশি সারাদেশে বড় বড় জামাতগুলো র‍্যাবের নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে বলে জানান মহাপরিচালক।

মাদকের বিরুদ্ধে ধারাবাহিক অভিযান অব্যাহত রাখার কথা মনে করিয়ে দিয়ে বেনজীর আহমেদ বলেন, অনেকে গডফাদার গডফাদার করছেন। কিন্তু এমন অনেক ব্যক্তিকে দুই-আড়াই লাখ ইয়াবাসহ গ্রেফতার করা হচ্ছে, তাদেরকে কিন্তু কেউ চিনেও না। ঈদের সময় মাদকপাচার বাড়তে পারে, সে বিষয়ে আমাদের নজরদারি থাকবে। কারও কাছে এ বিষয়ে তথ্য র‌্যাবকে জানানোরও অনুরোধ করেন তিনি।

 

কিউএনবি//১৮ই আগস্ট, ২০১৮ ইং/দুপুর ২:৩৯