ব্রেকিং নিউজ
১৩ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং | ২৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৫:৫৪

একটি মিডিয়া সরকার হটানোর ষড়যন্ত্রে নেমেছে

 

ডেস্কনিউজঃ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘আবারও বাংলাদেশে ১/১১ এর মতো ষড়যন্ত্রের গন্ধ পাচ্ছি। যারা রাজনৈতিক বিরাজনীতিকরণ করতে চেয়েছিল, তাদের সহযোগী ছিল মিডিয়ার একটি অংশ।

সেই মিডিয়া একটি দলের উসকানিতে শেখ হাসিনার সরকারকে হটানোর ষড়যন্ত্রে নেমেছে। তারাই অপপ্রচার চালাচ্ছে। তারাই শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে আক্রান্তদের আক্রমণকারী হিসেবে উপস্থাপন করেছে। এমনকি আমাদের দলের যার চোখ নষ্ট হয়ে গেছে তাকে শিক্ষার্থী হিসেবে উপস্থাপন করে সংবাদ প্রচার করেছে।’

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর ইডেন মহিলা কলেজ ছাত্রলীগের শোক দিবসের আলোচনা সভায় এ কথা বলেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর এক খুনিকে শিগগিরই দেশে এনে শাস্তি কার্যকর করা হবে। যুক্তরাষ্ট্রে যেই খুনি অবস্থান করছে, তাকে সরানোর জন্য ট্রাম্প প্রশাসন সবুজ সংকেত দিয়েছে। কানাডায় মৃত্যুদণ্ড না থাকায় আইনি জটিলতার কারণে একজনকে এই মুহূর্তে আনা যাচ্ছে না। আরেক দেশে থাকা বঙ্গবন্ধুর এক খুনিকে দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে অগ্রগতি ৯০ ভাগ সফল। আমাদের কূটনৈতিক উদ্যোগ সফল হতে যাচ্ছে।’

খালেদা জিয়ার জন্মদিন পালনের কথা তুলে ধরে কাদের বলেন, ‘আমাদের দেশের রাজনীতির কারো কারো আচরণ বঙ্গবন্ধুর হত্যাকাণ্ডের চেয়েও নৃশংস। এখানেই আমাদের প্রশ্ন রাখা উচিত স্কুলে, বিবাহে, পাসপোর্টসহ বিভিন্নভাবে মোট পাঁচটি জন্ম দিবস। এখন তারা জন্মদিন পালন করছে ফরমেট চেঞ্জ করে। তাদের আমরা ঘৃণা করি, ধিক্কার জানাই। ভুয়া জন্মদিন পালন করা একটা পাপ, একটা অপরাধ। বাংলাদেশে এই ধরনের নোংরা দৃষ্টান্ত যারা স্থাপন করেছে তারাই আজ অগণতান্ত্রিকভাবে সরকার হটানোর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত আছে।’

ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক তাসলিমা আক্তারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ সম্পাদক সামসুন্নাহার চাঁপা, কেন্দ্রীয় সদস্য মারুফা আক্তার পপি, ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন।

 

কিউএনবি/বিপুল/১৬ই আগস্ট, ২০১৮ ইং/রাত ৮:২৩