১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৪:৩২

জাহাঙ্গির আলম রংপুর বিভাগের শ্রেষ্ঠ ওসি নির্বাচিত

 

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামের রৌমারী থানার ওসি জাহাঙ্গির আলম রংপুর বিভাগের শ্রেষ্ঠ ওসি নির্বাচিত হয়েছেন। মঙ্গলবার সকাল ১১টায় রংপুর পুলিশ রেঞ্জ ডি-আইজি অফিসে, রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি দেবদাস ভট্রাচার্য,কুড়িগ্রামের রৌমারী থানা’র ওসি জাহাঙ্গির আলম রংপুর বিভাগের ৮ জেলার মধ্যে মাদক ও সন্ত্রাস দমনে সুখ্যাতি অর্জন করায় তাকে শ্রেষ্ঠ ওসি হিসেবে ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়। ইতিপুর্বে ২০১৭ সালে মাদক উদ্ধার ও আসামী গ্রেফতারে সাফল্য অর্জনে কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার মেহেদুল করিম ওসি জাহাঙ্গিরকে জেলা শ্রেষ্ট ওসি হিসেবে ক্রেষ্ট প্রদান করেন।

অপর দিকে রৌমারী থানার সাবইন্সপেক্টর মোঃ তুহিন চোরাচালান ও মাদক উদ্ধারে রংপুর বিভাগে শ্রেষ্ট সাবইন্সপেক্টর নির্বাচিত হয়ে ডিআইজি কতৃক ক্রেষ্ট গ্রহন করেন। ক্রেস্ট প্রদান অনুষ্ঠানের সময় উপস্থিত ছিলেন, রংপুর বিভাগের ৯ জেলার পুলিশ সুপার ও এএসপিগণ।জানা গেছে, ওসি জাহাঙ্গির রৌমারীতে যোগদান করেন ৫ই আগষ্ট ২০১৭ সালে।যোগদানের পরেই তিনি সুধি সমাজের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে রৌমারীকে একটি মাদকমুক্ত উপজেলা হিসেবে উপহার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি ব্যাক্ত করেন।রৌমারীতে যোগদানের ১ মাসের মধ্যে মাদকের হোতা, ব্যাবসায়ী, মাদক সেবী ও মাদকের রুট সবকিছু তার নখদর্পণে চলে আসে। মাদক সেবী ও ব্যাবসায়ীদের গ্রেফতার সহায়তায় তিনি অসংখ্য সোর্স নিয়োগ করেন।যারা অত্যান্ত গোপন ও পুলিশী নিয়ন্ত্রণে সংবাদ প্রদান করত।

তাই প্রতিনিয়ত গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাতভর ওতপেতে থেকে মাদকের চালানসহ গ্রেফতারে সফলতা অর্জন করেন। এ ব্যাপারে রৌমারী থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ জাহাঙ্গির আলম বলেন, রৌমারী এখন মাদক মুক্ত করার দ্বার প্রান্তে, আমি আমার সরকারি দায়িত্ব পালন করছি। মাদকের শিকড় উপরে ফেলা আমার মিশন। তিনি আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার মধ্যদিয়ে মাদকের বিরুদ্ধে সরকার যুদ্ধ ঘোষণা করেছে। তাই সরকারের নির্দেশ মোতাবেক অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। ওসি হিসেবে এটা আমার দায়িত্ব।পুলিশ সুত্র জানায়, রৌমারী থানায় ওসি জাহাঙ্গির যোগদানের পর থেকে ১ বছরে ভারতীয় মদ অফিসার চয়েজ ৯১৬বোতল, ফেন্সিডিল ২৩৯ বোতল, গাঁজা ৪ মন ২৩ কেজি, ইয়াবা ট্যাবলেট প্রায় ৮ হাজার পিস, হিরোইন ২শ ৭৬ গ্রাম উদ্ধার করা হয়। এর মধ্যে মোট মাদক মামলায় আসামী গ্রেফতার হয় ২৫২ জন।

এছাড়াও কুখ্যাত খুনি আজাদ বিদেশী পিস্তলসহ গ্রেফতার হন।রাজিবপুরের কোদাল কাটি থেকে সট গান উদ্ধার করেন ওসি জাহাঙ্গির। কুড়িগ্রামের পুলিশ সুপার মেহেদুল করিম এর দক্ষতায় একের পর সফলতা আসছে থানাগুলিতে।অভিযান ও নিত্যনতুন পরিকল্পনায় জেলা পুলিশ মাদক,সন্ত্রাস ও জংগী নির্মুলের দ্বারপ্রান্তে।। জেলার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি আগের চেয়ে অনেক ভালো।

 

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/১৪ই আগস্ট, ২০১৮ ইং/রাত ৯:১৪