১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ২:৪৩

ফেনীতে নদীভাঙ্গনের ভয়ে দিশেহারা দুই শতাধিক পরিবার 

 

আবদুল্লাহ রিয়েল,ফেনী : ফেনী সদর উপজেলার ফরহাদনগর ইউনিয়নের কালিদাস পাহালিয়া নদীর জোয়ার বাটার ফলে ফের ভাঙ্গনের কবলে পড়ে ভিটে-বাড়িসহ সর্বস্ব হারাতে বসেছে ২ শতাধিক পরিবার। জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের কর্তা ব্যক্তিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে আশ্বাস ফেলেও কার্যত কোন ফলাফল দেখছেন না ভুক্তভোগীরা। ফলে ফের ভাঙ্গন অব্যাহত রয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, সামান্য বৃষ্টির ফলে জোয়ার ভাটার কারনে ফরহাদনগর ইউনিয়নের চরকালিদাস গ্রামের  উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া কালিদাস পাহালিয়া খালের ফকির আহাম্মদের বাড়ি সংলগ্ন স্থান থেকে ফের ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে ওই গ্রামের ২ শতাধিক পরিবার। বিগত চারদলীয় জোট সরকারের আমলে ওই গ্রামের জাগির মেম্বার বাড়ী সংলগ্ন স্থানে বাঁধ নির্মাণ করা হলেও সম্প্রতি এ বাঁধ ভেঙে গিয়ে জাগির মেম্বার বাড়ি, সর্দার বাড়ি, বেলু মেস্ত্রি বাড়ি, ফকির আহাম্মদ বাড়ী, সৈয়দ মেম্বার ও দুলাল মেম্বারের বাড়ীসহ ২ শতাধিক পরিবার নদী গর্ভে বিলীন হতে বসেছে।

ভাঙ্গন অব্যাহত থাকলে এসব পরিবারের ভিটে-বাড়ি, ফসলি জমি বিলীন হওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। এর আগে ভাঙ্গনের কবলে পড়ে প্রায় শতাধিক পরিবার ভিটে-বাড়িসহ সর্বস্ব হারিয়েছে। সাইফুল ইসলাম নামে এক ভুক্তভোগী জানান, পরিকল্পিতভাবে উদ্যোগ গ্রহণ করা হলে এ অঞ্চলের নদী ভাঙ্গন রোধ করা সম্ভব হবে। স্থানীয় ইউপি সদস্য গিয়াস উদ্দিন জানান, ফের ভাঙ্গন দেখা দিলে ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন টিপু গটনাস্থল পরিদর্শন করে এলাকাবাসিকে নিয়ে ফেনী-২ আসনের সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারী এমপির সাথে দেখা করে সমস্যা সম্পর্কে অবহিত করেন।

এ সময় নিজাম হাজারী এমপি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন।এ ব্যাপারে ফরহাদনগর ইউপি চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন টিপু ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমি এলাকাবাসীর প্রতি খুবই আন্তরিক বলে ভাঙ্গন রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছি বলে তিনি জানান।ফেনী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. কহিনুর আলম জানান, বিষয়টি দ্রুত সমাধানের জন্য কাজ চলছে বলে তিনি জানান।

 

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/১৪ই আগস্ট, ২০১৮ ইং/বিকাল ৩:৫৮