২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১০:৪১

পিনাকী ‘নিখোঁজ’ দাবি পরিবারের

ডেস্কনিউজঃ আলোচিত লেখক ডা. পিনাকী ভট্টাচার্যের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না বলে তার পরিবার দাবি করেছে। শনিবার (১১ আগস্ট) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে পিনাকী ভট্টাচার্যের বাবা বগুড়ার প্রবীণ শিক্ষক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব শ্যামল ভট্টাচার্য জানান, গত ৬ আগস্ট গুলশানের অফিস থেকে বের হওয়ার পর থেকে তার ছেলেকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

বিবৃতিতে শ্যামল ভট্টাচার্য বলেন, ‘পিনাকী ভট্টাচার্যকে ৫ আগস্ট বিকেলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী একটি সংস্থার এক কর্মকর্তা ফোন করে তাঁর কার্যালয়ে যেতে বলেন। জবাবে পিনাকী জানান, তিনি কোনো অপরাধ করেননি, তিনি তার ব্যবসায়িক কার্যালয়ে বসে কথা বলতে চান। এর কিছুক্ষণ পর আবার ফোন আসে এবং পিনাকীকে ওই কর্মকর্তার কার্যালয়ে যাওয়ার জন্য চাপ দেয়া হয়। এমন পরিস্থিতিতে নিজের নিরাপত্তা নিয়ে আতঙ্কিত হয়ে তাৎক্ষণিকভাবে পিনাকী তার কার্যালয় থেকে বেরিয়ে সম্ভবত আত্মগোপনে চলে যান। এরপর থেকে পরিবারের কেউ তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেনি। তিনি কোথায় আছে কেমন আছেন, তার কোনো হদিস পরিবারের কাছে নেই।’

গত ৬ আগস্ট আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য পরিচয় দিয়ে কয়েকজন ব্যক্তি পিনাকীর খোঁজে তার ব্যবসায়িক কার্যালয় ও বাসায় যান। কোনো সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ছাড়া এ ধরনের তৎপরতায় পরিবারের সদস্য ও আত্মীয়-স্বজন শঙ্কিত। সবাই পিনাকীর জীবনের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন। এ পরিস্থিতি থেকে নিষ্কৃতি পেতে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন শ্যামল ভট্টাচার্য।

পেশায় চিকিৎসক পিনাকী একটি ওষুধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে দায়িত্বরত আছেন। ৯০-এর ছাত্র-গণঅভ্যুত্থানের মাঠ থেকে উঠে আসা রাজনৈতিক কর্মী ও সমসাময়িক বাংলাদেশে আলোচিত লেখকদের একজন পিনাকী ভট্টাচার্য। তিনি অনলাইন অ্যাকটিভিস্ট এবং ব্লগেও লিখালিখি করেন।

 

কিউএনবি/বিপুল /১২ই আগস্ট, ২০১৮ ইং/ রাত ৮:৩৭