২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৮:১৭

বদলে যাচ্ছে কুৃষ্টিয়ার প্রাথমিক শিক্ষা

নিউজ ডেস্কঃ  Monitoring & Supervision Training এর ফিল্ড ভিজিট এর আওতায় কুষ্টিয়া সদর উপজেলার পৌর ১ ও ৪ নম্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণি দুইটি পরিদর্শন করা হয়। পরিদর্শনকালে প্রাথমিক শিক্ষার খুলনা বিভাগীয় উপ-পরিচালক মেহেরুন নেছা,কুষ্টিয়া জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আনন্দ কিশোর সাহা, সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. সানাউল হাবীব, চুয়াডাঙ্গা সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার এস এম আব্দুর রহমান, মিরপুর উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. সিরাজুল ইসলাম,দৌলতপুর উপজেলা শিক্ষা অফিসার জয়নাল আবেদীন, কুষ্টিয়া পিটিআই ইন্সট্রাকটর অসিম কুমার সাহা ও কুৃষ্টিয়ার ছয়টি উপজেলার সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসারবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পরিদর্শিত দুইটি বিদ্যালয়ের প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণিকক্ষ দুইটি আকর্ষণীয় ও শিশুবান্ধবভাবে সজ্জিত করা হয়েছে। শ্রেণিকক্ষে শিশুদের জন্য রয়েছে বিভিন্ন ধরনের খেলনা, উপকরণের চারটি কর্নার, পর্যাপ্ত শিক্ষাপোকরণ, পানির ব্যবস্থা ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড পরিচালনার সুযোগ। দৈনিক সমাবেশের মাধ্যমে ৫+ বয়সী শিশু শিক্ষার্থীদের প্রতিদিনের শ্রেণি কার্যক্রমের সূচনা হয় যেখানে থাকে পবিত্র গ্রন্থ হতে তেলাওয়াত, জাতীয় সংগীত,শপথ পাঠ। জাতীয় পতাকাকে সম্মান প্রদর্শনের জন্য রয়েছে একটি আকর্ষণীয় পতাকা স্ট্যান্ড।
শিশু শিক্ষার্থীদের মহানুভবতা শিক্ষার জন্য শ্রেণিকক্ষে এই উদ্ভাবনী ধারণার অনুশীলন করা হচ্ছে। পরিদর্শনের জন্য অতিথিবৃন্দ শ্রেণিকক্ষে প্রবেশ করতেই শিশু শিক্ষার্থীরা ফুল ও চকলেট দিয়ে অতিথিদের বরণ করে নেয়।

প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণিকক্ষে পর্যাপ্ত সংখ্যক খেলনা থাকায় শিশু শিক্ষার্থীরা খেলতে খেলতে শিখতে পারছে। প্রাথমিক শিক্ষার প্রতি তাদের ভীতি দূর হয়ে যাচ্ছে। শিক্ষার্থীদের আনন্দ ও বিনোদনের মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষায় অভিষেক ঘটানো হচ্ছে। প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত শ্রেণি শিক্ষক গল্প,ছড়া,সৃজনশীল কর্ম, নৃত্য ও সংগীতের মাধ্যমে শিশু শিক্ষার্থীদের শ্রেণি কার্যক্রম পরিচালনা করায় শিশু শিক্ষার্থীরা নিজ বাড়ির চেয়ে স্কুলে থাকতে বেশি আনন্দবোধ করছে পরিদর্শিত বিদ্যালয় দুইটির শিক্ষার্থীরা।

কিউএনবি/নিল/ আগস্ট, ২০১৮ ইং/২০ঃ৪১