১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৬:০৩

পীরগঞ্জে ফসলি জমিতে ইটভাটা নির্মানের হিড়িক সরকারি অনুমোদন ছাড়াই

 

গীতি গমন চন্দ্র রায়,পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে ইটভাটা নির্মানের হিড়িক পড়েছে। নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করেই ফসলি জমিতে নতুন করে কোন প্রকার অনুমোদন ছাড়াই নির্মাণ করা হচ্ছে ইটভাটা। এরই মধ্যে বৈরচুনা ইউনিয়নে ২টি ভাটা নির্মান কাজ চলছে। পরিকল্পনা চলছে আরো কমপক্ষে ৩ টি ভাটা স্থাপনের। নীতিমালা লঙ্ঘন করে ইটভাটা নির্মাণ কাজ চললেও সেদিকে নজর নেই কারো। সরেজমিনে দেখা গেছে, কোন অনুমোদন ছাড়াই পীরগঞ্জ উপজেলার বৈরচুনা ইউনিয়নের বৈরচুনা ও পারঘাটায় ফসলী জমিতে ২টি ভাটা নির্মান কাজ চলছে।

ইটভাটা আইন ২০১৩ অনুযায়ী ইটভাটা নির্মাণের ক্ষেত্রে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কর্তৃক অনুমোদনের পর পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র এবং জেলা প্রশাসকের অনুমোদন থাকতে হবে। ফসলি জমি, আবাসিক, জনবসতি, সংরক্ষিত জলাভূমি, বনভূমির মতো গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় ভাটা স্থাপন করা যাবে না। স্থাপন করলে ১ বছরের কারাদন্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানার বিধান রয়েছে। এক্ষেত্রে কোন নিয়মই মানা হচ্ছে না। ইউনিয়ন পরিষদের কাছ থেকে ট্রেড লাইসেন্স নিয়ে স্থানীয় প্রশাসনকে ম্যানেজ করেই ইটভাটা নির্মান কাজ করছেন তারা। বৈরচুনায় ভাটা তৈরীর কাজ প্রায় শেষ প্রান্তে আর পারঘাটায় ইট ও মাটি জমা করে ভাটা তৈরীর প্রস্তুতি চলছে। বৈরচুনায় নির্মানাধীন ভাটা মালিক সাইফুল জানান, ট্রেড লাইসেন্স নিয়ে ভাটার কাজ শুরু করেছি।

আস্তে আস্তে সব কিছুই ঠিক করা হবে।এদিকে ইটভাটা মালিক সমিতির হিসাব মতে গত বছর পীরগঞ্জে ৪ টি নতুন ইটভাটা হয়েছে। এবার এখন পর্যন্ত ২টার নির্মান কাজ চলছে। পরিকল্পনা চলছে আরো কমপক্ষে ৩ টির। বৈরচনা ইউনিয়নে নির্মানাধীন ২টি ইটভাটা বিষয়ে ইউপি সদস্য আনিসুর রহমান জানান, ফসলের মাঠে ইটভাটা হচ্ছে কিভাবে। এ বিষয়ে পরিষদের সদস্যরা কিছুই জানেন না। সব কিছুই নিয়ন্ত্রন করছেন চেয়ারম্যান জালাল উদ্দীন। এ বিষয়ে চেয়ারম্যানের বক্তব্য হল, এলাকার লোকজন ট্রেড লাইসেন্স চাইছেন। সেজন্য দেওয়া হয়েছে।এটা দোষের কি ?

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এসএম গোলাম সারওয়ারের মতে, ফসলি জমিতে ইটভাটা করার কোন বিধান না থাকলেও এ বিষয়ে আমাদের করার তেমন কিছুই নেই। আটকানোর ক্ষমতা আমাদের নেই। আমরা প্রতিবেদন দিতে পারি মাত্র। পীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ ডব্লিউ এম রায়হান শাহ বলেন আমাদের কাছে কোন অভিযোগ করা হয়নি। বিষয়টি আমার জানা নেই।

 

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/৯ই আগস্ট, ২০১৮ ইং/সন্ধ্যা ৬:৪৩