২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১২:৩৮

উলিপুরে বুদ্ধি প্রতিবন্ধি যুবতীকে ধর্ষনের অভিযোগে থানায় মামলা

 

শিমুল দেব, উলিপুর (কুড়িগ্রাম) : কুড়িগ্রামের উলিপুরে এক বুদ্ধি প্রতিবন্ধি যুবতীকে ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই যুবতীর(২২) বড় ভাই আফছার আলী বাদী হয়ে থানায় মামলা করলেও পুলিশ এখন পর্যন্ত আসামী গ্রেপ্তার করতে পারেননি। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার গুনাইগাছ ইউনিয়নের গুনাইগাছ দালালীপাড়া গ্রামে।

মামলা ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার গুনাইগাছ ইউনিয়নের গুনাইগাছ দালালীপাড়া গ্রামের নজরুল ইসলামের পুত্র দুই সন্তানের জনক মোখলেছ (৪০) প্রতিবেশি হওয়ার সুবাদে আফছার আলীর বাড়িতে যাতায়াত করত। শুক্রবার (০৩ আগষ্ট) সকাল ১০টার দিকে বাড়িতে লোকজন না থাকার সুযোগে ওই বুদ্ধি প্রতিবন্ধি যুবতীকে বাড়িতে একা পেয়ে মোখলেছ বাড়ির পিছনে নিয়ে তাকে ধর্ষন করে। এ সময় তার চিৎকারে স্বজন ও প্রতিবেশিরা এগিয়ে আসলে ধর্ষক পালিয়ে যায়। এ ঘটনার পর গ্রামের প্রভাবশালী একটি মহল ওই প্রতিবন্ধি যুবতীর সঙ্গে মোখলেছের বিয়ে দেওয়ার কথা বলে সময় ক্ষেপন করেন। পরে টাকার বিনিময়ে মিমাংসার চেষ্টা করলে ধর্ষিতার বড় ভাই আফছার আলী বোনকে সঙ্গে নিয়ে থানায় এসে বুধবার (০৮ আগষ্ট) রাতে মামলা করেন। মামলা নং-০৮, তারিখ-০৮/০৮/২০১৮ ইং।

ধর্ষিতার বড় ভাই আফছার আলী জানান, আমার বুদ্ধি প্রতিবন্ধি বোনকে মোখলেছ ধর্ষন করার পর গ্রামের একটি প্রভাবশালী মহলকে দিয়ে বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে। আমরা গরীব হওয়ায় মামলা না করার জন্য তারা নানান ভাবে সময় নষ্ট করেন। আমার পরিবারের দাবি ছিল মোখলেছের সাথে বোনের বিয়ে দেয়া, প্রথমে তারা তা মেনেও নেয় কিন্তু তা না করে ধর্ষকের পিতা টাকার বিনিময়ে মিমাংসা করতে চাইলে বাধ্য হয়ে আইনের আশ্রয় নেই।উলিপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, ধর্ষনের শিকার বুদ্ধি প্রতিবন্ধি যুবতীকে প্রয়োজনীয় ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য বৃহস্পতিবার (০৯ আগষ্ট) কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। আসামী গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/৯ই আগস্ট, ২০১৮ ইং/বিকাল ৫:২৪