১৪ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১২:৫৪

রবি ঠাকুরের প্রয়াণ দিবসে কুষ্টিয়ায় আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

প্রিতম মজুমদার, কুষ্টিয়া : বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ৭৮ তম প্রয়াণ উপলক্ষে কুষ্টিয়া পৌরসভার আয়োজনে সোমবার সন্ধায় পৌর অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। কুষ্টিয়ার জননন্দিত পৌর মেয়র আনোয়ার আলীর সভাপতিত্বে আলোচক ছিলেন রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের সভাপতি ড. মুনমুন গঙ্গোপাদ্যায়।

সভাপতির বক্তব্যে আনোয়ার আলী বলেন রবীন্দ্রনাথের জন্ম পশ্চিমবঙ্গের জোড়াসাকোয় হলেও পুর্নজন্ম হয়েছে কুষ্টিয়ায়। কুষ্টিয়ার আবহাওয়া ও জলবায়ু রবি ঠাকুরের সাহিত্য চর্চায় অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে। তিনি আরও বলেন রবি ঠাকুর ও বঙ্গবন্ধুর মৃত্যু এই আগষ্ট মাসেই। কিন্তু বাঙালীর জীবনে তাদের বিচরণ ক্ষেত্র এতটাই ব্যাপক তারা এখনও আমাদের কাছে অমর।

আলোচক মুনমুন গঙ্গোপাদ্যায় বলেন রবীন্দ্রনাথ জন্মদিন ও মৃত্যুদিনের মধ্যে কোন তফাত খুঁজে পাননি। রবি ঠাকুর যতই এগিয়েছেন মৃত্যুর দিকে ততই ভালবেসেছেন মানুষকে, প্রকৃতিকে। মানুষ ও প্রকৃতি প্রেম উঠে এসেছে তার লেখার মধ্যে। তিনি আরও বলেন আমাদের পৃথিবীতে যিনি ভাল কাজ করেন তিনি স্মরণীয় হয়ে থাকেন, কিন্তু রবীন্দ্রনাথ মানুষকে ভালবাসার জন্য, মৈত্রীর রাখী পরানোর জন্য, মহামিলনের জন্য আমাদের মাঝে চির স্মরণীয় হয়ে আছেন।

আলোচনা শেষে পশ্চিমবঙ্গ থেকে আগত শিল্পী এবং কুষ্টিয়ার রবীন্দ্রসংগীত সম্মিলন পরিষদের শিল্পীদের যৌথ অংশগ্রহনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। শিল্পীরা সুরের মূর্ছনায় রবি ঠাকুরের জন্ম ও মৃত্য, প্রেম, বিরহ, প্রকৃতির ভাবনা তুলে ধরেন।

পশ্চিমবঙ্গের শিল্পীদের মধ্যে ছিলেন সুতপা সেন, তন্ময় চট্টোপাধ্যায়, সুমন দাশ, কৌশলী দাশ মিত্র প্রমুখ। রবীন্দ্র সংগীত সম্মিলন পরিষদের শিল্পীদের মধ্যে ছিলেন অশোক সাহা, আতাউর রহমান বাদল, সরওয়ার মুর্শেদ রতন, শুক্লা মজুমদার, স্বপন দত্ত,আশিকুর রহমান জুয়েল প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে কুষ্টিয়ার সংস্কৃতিমনোস্ক বিপুল সংখ্যক মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

কিউএনবি/রেশমা/৭ই আগস্ট, ২০১৮ ইং/সকাল ১০:১০