১৯শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সন্ধ্যা ৭:৩৪

মন্ত্রীদের নির্দেশে গণপরিবহন বন্ধ রাখা হয়েছে: রিজভী

 

ডেস্কনিউজঃ বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, কোমলমতি শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের যৌক্তিক দাবিগুলোকে অগ্রাহ্য করার জন্যই মন্ত্রীদের নির্দেশে গণপরিবহন বন্ধ রাখা হয়েছে।

শুক্রবার (০৩ আগস্ট) বেলা সোয়া ১১টার দি‌কে রাজধানীর নয়াপল্ট‌নে কেন্দ্রীয় কার্যাল‌য়ে এক সংবাদ স‌ম্মেল‌নে তিনি এ অভিযোগ করেন।

রিজভী বলেন, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন- নিরাপত্তার জন্য পরিবহন মালিকরা বাস রাস্তায় নামাচ্ছেন না। অথচ গতকাল বৃহস্পতিবার কোমলমতি শিক্ষার্থীরা গাড়ি চলতে বাধার সৃষ্টি করেনি বরং তারা সুশৃঙ্খলভাবে গাড়ি চলতে সহায়তা করেছে। তারা গাড়ি ও চালকদের লাইসেন্স আছে কিনা, সেটি চেক করেছে। সেখানে মন্ত্রী-এমপি, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কারও গাড়ির কাগজপত্র নেই। এটা জাতির জন্য লজ্জার।

তিনি বলেন, শুধু পরিবহন সেক্টর নয়, দেশের সব সেক্টরে ভোটারবিহীন সরকার ব্যর্থ হয়েছে। ফলে বিএনপির পক্ষ থেকে সরকারের পদত্যাগ দাবি আজ গণদাবিতে পরিণত হয়েছে।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে নাশকতার আশঙ্কা করে বক্তব্য দেয়ার পরপরই তাদের ওপর পুলিশ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা আক্রমণ করেছে। এসব দেখে সুস্পষ্ট হয়ে উঠছে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর স্যাবোটাজের বক্তব্য মূলতঃ সরকারি নাশকতারই ইঙ্গিত।

কোমলমতি শিক্ষার্থীরাও এই সরকারকে বিশ্বাস করে না উল্লেখ করে রিজভী বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী গত পরশু বলেছেন— শিক্ষার্থীদের সব দাবি মেনে নিয়েছে সরকার। তারপরও বৃহস্পতিবার শিক্ষার্থীরা মাঠে কেন?

 

কিউএনবি/বিপুল/৩রা আগস্ট, ২০১৮ ইং/দুপুর ২:০০