২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৪:২৯

নিজের বাসায় মায়ের হাত বাঁধা লাশ, অক্ষত শিশু সন্তান

 

ডেস্কনিউজঃ চট্টগ্রাম নগরীতে নিজ বাসায় এক নারীর লাশ পাওয়া গেছে। তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানিয়েছে পুলিশ।

চট্টগ্রাম নগরীর চান্দগাঁও থানার উত্তর-পশ্চিম ফরিদার পাড়া এলাকায় আব্দুর রহিম মুন্সীর বাড়িতে এই ঘটনা ঘটেছে। হত্যাকাণ্ডের খবর পেয়ে বুধবার (০১ আগস্ট) বিকেল তিনটার দিকে পুলিশ ওই বাসায় গেছে।

নিহত বিবি রহিমার (২৭) স্বামী এহতেশামুল পারভেজ সিদ্দিকী চট্টগ্রাম আদালতে আইনজীবী হিসেবে কাজ করেন। তিনি চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাংস্কৃতিক সম্পাদক।

পুলিশ জানিয়েছে, সকাল ১০টার দিকে আইনজীবী পারভেজ বাসা থেকে বেরিয়ে আদালতে যান। দুপুর আড়াইটার দিকে তিনি বাসায় ফিরে স্ত্রীর লাশ দেখে পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ গিয়ে দেখতে পায়, রহিমার গলায় কাপড় প্যাঁচানো আছে। তার দুই হাত পেছন থেকে বাঁধা অবস্থায় পাওয়া গেছে।

বাসায় দুই বছর নয় মাস বয়সী তাদের এক সন্তানও ছিল। সন্তান অক্ষত আছে বলে সারাবাংলাকে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম নগর পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) মো.আব্দুল ওয়ারিশ খান।

ওয়ারিশ খান বলেন, বাসার ভেতরে দুটি কক্ষ আছে। ভেতরের কক্ষে খাটের উপর লাশটা পাওয়া গেছে। কিছু জিনিসপত্র তছনছ অবস্থায় পাওয়া গেলেও কিছু মিসিং নেই বলে পারভেজ সাহেব নিশ্চিত করেছেন। তবে একটা টিভি কার্ডের মনিটর পাওয়া যাচ্ছে না বলে তিনি জানিয়েছেন।

স্থানীয় থানা এবং পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের পাশাপাশি সিআইডির ক্রাইম সিন ইউনিটের সদস্যরাও ঘটনাস্থলে পৌঁছে তদন্ত করছেন। নিহতের স্বামীকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

ফরিদারপাড়া এলাকার একতলা বাড়িটি তাদের নিজস্ব। রহিমার বাবার বাড়ি ফটিকছড়ি উপজেলায়। ওই বাসার পেছনে আরেকটি ভাড়া বাসায় দুজন যুবক থাকেন। তাদের পাওয়া যাচ্ছে না বলে পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে।

মো. আব্দুল ওয়ারিশ খান সারাবাংলাকে বলেন,  কী কারণে এই হত্যাকাণ্ড হয়েছে সেটা আমরা এখনও নিশ্চিত নই। ডাকাতি কিংবা ধর্ষণের মতো কোন ঘটনা ঘটেনি। তাহলে কেন এই হত্যাকাণ্ড সেটা গভীরভাবে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

 

কিউটিভি/রামিম/১লা আগস্ট, ২০১৮ ইং/সন্ধ্যা ৭:২৪