১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৭:৫৩

‘নির্বাচন ভালো হয়েছে, আমরা সন্তুষ্ট’

 

ডেস্কনিউজঃ বরিশাল সিটি করপোরেশনের ১৬টি কেন্দ্র ব্যতীত অন্য দুটি সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সুষ্ঠু ভোট হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা। তিনি বলেন, ‘সব মিলিয়ে নির্বাচন ভালো হয়েছে। আমরা সন্তুষ্ট। যেখানে সমস্যা ছিল সেখানে তো আমরা ব্যবস্থা নিয়েছি।’

আজ সোমবার সন্ধ্যায় আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে সিইসি কে এম নুরুল হুদা এসব কথা বলেন।

সিইসি কে এম নুরুল হুদা বলেন, ‘রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মোট ১৩৮টি কেন্দ্রে শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে এবং সেখানে ভোট গণনা শুরু হয়েছে। সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ১৩৪টি কেন্দ্রের মধ্যে দুটি কেন্দ্র ব্যতীত বাকি কেন্দ্রসমূহে শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।’

সিইসি আরো বলেন, ‘বরিশালের ১২৩ কেন্দ্রের মধ্যে সকালের দিকে কিছু বিক্ষিপ্ত-বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটেছে। আমরা বিস্তারিত তথ্য নিয়েছি। এই বিষয়ে একটি কেন্দ্র বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে সকালেই। আরো ১৫টি কেন্দ্রে অনিয়ম পরিলক্ষিত হওয়ায় ওই কেন্দ্রগুলোর ফলাফল স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। পরবর্তী সময়ে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

বরিশাল সিটিতে আওয়ামী লীগ ছাড়া সবাই ভোট বর্জন করেছে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সিইসি বলেন, ‘এটা তো তাঁদের সিদ্ধান্তের ব্যাপার।  আমরা ১৫টি কেন্দ্রের ভোটের ফলাফল স্থগিত করেছি।  এটা তো বড় ধরনের শঙ্কা। এ ছাড়া অন্যগুলোতে আমরা অনিয়মের ব্যাপারে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছ থেকে তথ্য পাইনি।

সিইসি নুরুল হুদা আরো বলেন, ‘মোট কত শতাংশ ভোট পড়েছে তা এখনি বলা মুশকিল। কারণ ভোট গণনা এখনো চলছে।’

বরিশালের ভোট বর্জন করা প্রার্থীরা পুনরায় ভোট গ্রহণের লিখিত আবেদন জমা দিয়েছে নির্বাচন কমিশনে। এ ব্যাপারে সিইসি বলেন, ‘তাঁরা আবেদন করেছেন আমরা সেটা জেনেছি। কিন্তু পুনরায় ভোট গ্রহণ করার মতো অবস্থা আমরা সেখানে পাইনি।’

সিইসি আরো বলেন, ‘একজন মেয়র প্রার্থীর ওপর আক্রমণ হয়েছে কি না সেটা আমরা তদন্ত করব। আর তিনি চাইলে কোর্টের আশ্রয় নিতে পারেন।’

 

কিউএনবি/বিপুল/৩০.০৭.১৮/রাত ৯:৪৩