২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১০:১৪

মহেশপুরে ৪ বিবাহের হোতা পাষন্ড স্বামী গরম পানি ঢেলে ঝলসে দিল স্ত্রীর শরীর

 

মোঃ জাহিদুর রহমান তারিক,স্টাফ রিপোর্টার,ঝিনাইদহ : ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার স্বরুপপুর ইউনিয়নের কুসুমপুর গ্রামে বৃহস্পতিবার রেহেনা (২৬) নামের এক গৃহবধুকে ফুটন্ত গরম পানি গায়ে ঢেলে মাথা সহ শরীর ঝলসে দিয়েছে তার পাষন্ড স্বামী।

এ ঘটনা প্রতিবেশীরা ঐ গৃহবধুকে দ্রুত উদ্ধার করে প্রথমে জীবননগর হাসপাতালে ভর্তি করলে একদিন পর গৃহবধুর ভাইয়েরা এসে বোনের অবস্থা আশংখা দেখে যশোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে এবং সেখানে সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তবে তার অবস্থা অত্যান্ত আশংখা জনক, একটি চোখ নষ্ট হয়ে যেতে পারে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

জানা গেছে, মহেশপুর উপজেলার স্বরুপুর ইউপির কুসুমপুর গ্রামের মাঠ পাড়ার ভাজা ব্যবসাহী মোঃ সোনা মিয়ার এক মাত্র পুত্র বহু বিবাহের হোতা আলম (৩০) গত ২৬ জুলাই বিকালে নিজ স্ত্রী রেহেনাকে ফুটন্ত গরম পানি গায়ে ঢেলে মাথা সহ শরীর ঝলসে দিয়ে এলাকা থেকে গা ঢাকা দিয়েছে।

৪ বিবাহের হোতা আলম পার্শবর্তি কোটচাঁদপুর উপজেলার সাবদালপুর ইউপির সুয়াদী গ্রামের হামিজ্জুদ্দীনের কন্যা রেহেনাকে বিবাহ করে ঘর সংসার করে আসছিল সংসার জীবনে আলামিন (১২) ও মোস্তাকিন (৭) নামের দুটি পুত্র সন্তানও রয়েছে।

গ্রাম ও এলাকাবাসী জনান আলম হচ্ছে দুষ্ট প্রকৃত লোক তার ভয়ে কেহ মুখ খুলতে সাহস পায় না।এঘটনায় আলমের মা বাবা এবং বড় পুত্র ঘটনার কথা স্বীকার করে বলেন, উনাদের দুজনের মধ্যে কথা কাটা কাটি চলছিল কথা কাটা কাটির এক পর্যায়ে গায়ে গরম পানি ঢেলে দেয়।

এ বিষয়ে আলমের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। এঘটনায় গ্রাম ও এলাকাবাসী প্রশাসনের সদয় দৃষ্টি কামনা করছেন।

কিউএনবি/রেশমা/২৯শে জুলাই, ২০১৮ ইং/সকাল ৮:৫৪