২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সন্ধ্যা ৬:৪৯

ফেন্সিডিল ফেলতে গিয়ে ধরা খেলেন মসজিদের ইমাম

 

এম নজরুল ইসলাম,বগুড়া : ফেন্সিডিলসহ বগুড়ার শেরপুরে এক মসজিদের ইমামকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।তার নাম হাফেজ মাওলানা ইলিয়াস আলী (৪০)।তিনি উপজেলার গাড়ীদহ ইউনিয়নের কালসিমাটি গ্রামের আমজাদ হোসেনের ছেলে এবং স্থানীয় নয়মাইল বাজারস্থ একটি অটোরাইস মিল মসজিদের ইমাম।গত শুক্রবার রাতে কালসিমাটি গ্রামস্থ নিজ বাড়ি থেকে ১০ বোতল ফেন্সিডিলসহ তাকে গ্রেফতার করা হয়।

শেরপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আতোয়ার রহমান জানান, গ্রেফতারকৃত ইলিয়াস আলীর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দিয়ে শনিবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।পুলিশ জানায়, এরআগে গাড়ীদহ মাদ্রাসাপাড়া থেকে ফেন্সিডিলসহ মিজানুর রহমান শাওন (৩৫) নামের এক পল্লী চিকিৎসককে আটক করে জেলা মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর।

এসময় তার বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে ৩৯ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করা হয়।পরে তাকে শেরপুর থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়।পল্লী চিকিৎসক মিজানুর রহমান শাওন দীর্ঘদিন ধরে ফেন্সিডিল সেবন ও এলাকায় চিকিৎসার নামে ফেন্সিডিলের কারবার করছেন-এমন অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে বেশকিছু মাদক ব্যবসায়ীসহ সিন্ডিকেটের মূলহোতাদের সম্পর্কে তথ্য দেয় পল্লী চিকিৎসক মিজানুর। তার দেয়া তথ্য যাচাই-বাছাই করে মাদক ব্যবসায়ীদের ধরতে মাঠে নামে পুলিশ।পরে উপজেলার কালসিমাটি গ্রামস্থ মসজিদের ইমাম মাওলানা ইলিয়াস আলীর বাড়িতে অভিযান চালানো হয়।

পুলিশের উপস্থিতি আঁচ করতে পেরে তার হেফাজতে থাকা ফেন্সিডিলগুলো বাড়ির পাশের একটি জলাশয়ে ফেলে দেয়ার সময় ১০ বোতল ফেন্সিডিলসহ ইলিয়াস আলীকে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়।

 

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/২৮শে জুলাই, ২০১৮ ইং/রাত ৮:১৫