১৮ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ২:২০

আবারও সুনামগঞ্জে বন্যার পানি বাড়তে শুরু করেছে

নিউজ ডেস্কঃ শুক্রবার রাত থেকে আবারও সুনামগঞ্জ জেলার বিভিন্ন নদ-নদী ও হাওরের পানি বাড়তে শুরু করেছে। শুক্রবার রাতে শুরু হওয়া ভারি বৃষ্টিই এই পানি বৃদ্ধির কারণ।

যদিও গতকাল সারা দিন তুলনামূলক বৃষ্টি কম হওয়ায় জেলার বিভিন্ন নদ-নদী ও হাওরের পানি কিছুটা কমতে শুরু করেছিল। কিন্তু রাত থেকে শুরু হওয়া বৃষ্টির কারণে সুনামঞ্জের সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে।

আজ শনিবার সকালে সুরমা নদীর পানি বিপৎসীমার ৬৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ফলে তলিয়ে গেছে আশপাশের এলাকা। জেলার কয়েক হাজার মানুষ পানিবন্দি অবস্থায় বসবাস করছেন। এসব এলাকায় বিশুদ্ধ খাবার পানি ও শুকনো খাবারের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে।

এদিকে, সুরমা নদীর স্রোতে সুনামগঞ্জ শহরের নবীনগর এলাকার সড়কটি ভেঙে পড়ায় ধারারগাঁওয়ের  সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। একইভাবে সুনামগঞ্জ-তাহিরপুর ও দোয়ারা-ছাতক সড়কের বিভিন্ন অংশ ভেঙে পানি উঠে পড়ায় সাত দিন ধরে সব ধরনের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

এক সপ্তাহ ধরে হাওরের বেশির ভাগ এলাকা পানিতে ডুবে থাকায় জেলার প্রায় পাঁচশ’ হেক্টর আমন ধান নষ্ট হয়ে গেছে। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ধানের বীজতলা।

সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক শেখ রফিকুল ইসলাম জানান, প্রতিটি উপজেলার জন্য পাঁচ টন করে চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। তবে তা অপ্রতুল হওয়ায় আরো বরাদ্দ চেয়ে মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে। জেলা প্রশাসন সব সময় তৎপর রয়েছে জানিয়ে প্রশাসক জানান, যেকোনো ধরনের পরিস্থিতি মোকাবিলা করতেও তাঁরা প্রস্তুত আছেন।

 

কুইকনিউজবিডি.কম/এডি/২৩.০৭.২০১৬/০৯:৫৫