১১ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং | ২৭শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ১০:৩৪

বাঘাইছড়িতে আঞ্চলিক সন্ত্রাসীদের কয়েকশ রাউন্ড গুলি বিনিময় : নিহত-১

 

আলমগীর মানিক,রাঙামাটি : রাঙামাটির বাঘাইছড়িতে সশস্ত্র তিন আঞ্চলিক সন্ত্রাসীদের মধ্যে ২ ঘন্টাব্যাপী চলা বন্দুকযুদ্ধে বন কুসুম চাকমা (৩০) নামে এক যুবক নিহত হয়েছে বলে জানাগেছে।

বৃহস্পতিবার বিকেল তিনটার সময় বাঘাইছড়ির রূপকারি ইউনিয়নের দাঙ্গাছড়া, রাইন্না ছড়া ও বেতাগী ছড়া এলাকায় সংস্কারপন্থী জেএসএস ও গণতান্ত্রিক ইউপিডিএফ এর সাথে মূল ইউপিডিএফর সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা বন্দুক যুদ্ধে লিপ্ত হয়।স্থানীয় এলাকাবাসী জানায়, প্রায় দুই ঘন্টাব্যাপী চলা এই বন্দুকযুদ্ধে অন্তত চারশো রাউন্ড গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটে।

এতে করে দাঙ্গা ছড়া এলাকায় জেএসএস (এমএন-লারমা) গ্রুপের বন কুসুম চাকমা প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসীদের গুলিতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। অপরদিকে এই ঘটনায় ইউপিডিএফ মূল দলেরও দু’জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে এমন তথ্য পেলেও তাদের নাম-ঠিকানা পাওয়া যায়নি।

বাঘাইছড়ির বালুখালী এলাকার বাসিন্দা বন কুসুম সংস্কারপন্থী হিসেবে পরিচিত প্রয়াত এমএন লারমা সমর্থিত পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি জেএসএস এর সদস্য বলে নিশ্চিত করেছেন দলটির একাধিক নেতা।

বাঘাইছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ আমির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, নিহতের লাশ উদ্ধারের ব্যাপারে আমরা নিরাপত্তা বাহিনীকে সাথে নিয়ে ঘটনাস্থলে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছি। তিনি জানান, এই ব্যাপারে থানায় কোনো অভিযোগ কেউ দায়ের করেনি।

এদিকে ঘটনার পরপরই বাঘাইহাট জোনের সেনা সদস্যরা উক্ত তিনটি এলাকায় অভিযানে গেলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।এসময় উক্ত এলাকায় বন্দুকযুদ্ধের বিভিন্ন আলামত পাওয়ার পাশাপাশি বিপুল পরিমান মনুষ্য রক্ত ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকতে দেখতে পেয়েছে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা।

এদিকে জেএসএস (এমএন-লারমা) এর একাধিক নেতা নাম প্রকাশ নাকরার শর্তে তাদের কর্মী বন কুসুম চাকমা নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, মূলতঃ বনকুসুম চাকমা আমাদের সংগঠনের নেতাকর্মীদের পথ প্রদর্শক হিসেবে কাজ করতো।এদিকে এই ঘটনার পর থেকে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।যেকোন সময় আরো রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটার আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা।

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/২৬শে জুলাই, ২০১৮ ইং/সন্ধ্যা ৬:১১