১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৯:৪০

হরিনাকুন্ডুতে সোনার দোকানে চুরির অপবাদ দিয়ে বোরকা পরা নারীকে বিবস্ত্র করে তল্লাশির ঘটনায় তোলপাড়,

 

মোঃ জাহিদুর রহমান তারিক,ঝিনাইদহ : ঝিনাইদহের হরিনাকুন্ডু উপজেলা শরের এক সোনার দোকানে চুরির অপবাদ দিয়ে বোরকা পরা এক নারীকে বিবস্ত্র করে তল্লাশি করেছে দোকানদার বিজয় কর্মকার। এ ঘটনা নিয়ে হৈচৈ পড়ে গেছে। লজ্জা ও অপমানে ওই নারী সুষ্ট বিচার দাবী করেছেন।

স্থানীয় দোকান মালিক সমিতি সুত্রে জানা গেছে, ২৩শে জুলাই সোমবার বিকালে হরিনাকুন্ডু বাজারের দিব্যা জুয়েলারে গহনা বানাতে আসেন একই উপজেলার শিতলী গ্রামের এক নারী। কিছুক্ষণ পর দিব্যা জুয়েলার্সের মালিক চিথলীয়া পাড়া গ্রামের বিজয় কর্মকার তাকে গহনা চুরির অপবাদ দিয়ে আটকে রাখে। সোমবার সন্ধ্যা নাগাদ তাকে ঘরে আটকে রাখার পর এক পর্যায়ে তার বোরকা খুলে দেহ তল্লাশি করে।

এ নিয়ে শহর জুড়ে তোলপাড় শুরু হয়। কান্নায় ভেঙে পড়েন ওই নারী। আস্তে আস্তে জটলা বড়তে থাকে দিব্যা জুয়েলারি দোকানে। খবর পেয়ে হরিনাকুন্ডু থানার এ এস আই নাসির উদ্দীন ঘটনাস্থলে এসে দোকানের সিসিটিভির ফুটেজ চেক করেন। ফুটেজে দেখা গেছে হেনস্থার শিকার ওই নারী যেখানে বসেছিলেন সেখানেই আছেন। দোকানের কোন জিনিসে তিনি হাত দেন নি।

এদিকে মিথ্যা চুরির অপবাদ দিয়ে বোরকা পড়া নারীর দেহ তল্লাশি নিয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়ে জনতা। তবে কেও সুষ্ঠ বিচার করেনি। দোকান মালিক বিজয়ের এধরনের ন্যাক্কার জনক কর্মকান্ডে ক্ষুদ্ধ এলাকাবাসী এই নিষ্ঠুর আচরনের বিচার দাবী করেছেন। হরিনাকুন্ডু বাজার মালিক সমিতির সভাপতি ডাঃ শরিফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/২৪শে জুলাই, ২০১৮ ইং/রাত ৮:৩৮