১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ২:২৩

নেত্রকোনার দুর্গাপুরে ৪ শিক্ষক দিয়ে চলছে সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের পাঠদান

 

 

দুর্গাপুর(নেত্রকোনা)প্রতিনিধি : নেত্রকোনার দুর্গাপুর পৌরশহরে অবস্থিত ১৯১৮সনে নির্মিত সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়টিতে শিক্ষক স্বল্পতা নিয়েই চলছে পাঠদান কার্যক্রম।


এ নিয়ে বৃহস্পতিবার সরেজমিনে কথা বলে দেখাগেছে, ১৮টি সৃষ্ট পদের মধ্যে মাত্র ৬জন শিক্ষক থাকলেও অসুস্থ্যতা জনিত কারনে ছুটিতে রয়েছেন ১জন, প্রধান শিক্ষক ময়মনসিংহের গৌরীপুর থেকে আসেন এবং দাপ্তরিক কাজে প্রায়ই বাহিওে অবস্থান করায় মাত্র ৪জন শিক্ষক দিয়ে নিভু নিভু অবস্তায় পাঠদান কার্যক্রম চলছে।  শিক্ষক না থাকায় শিক্ষার্থীরা এলোমেলো অবস্থা ঘোরাঘোরী করছে। স্কুলে বর্তমান শিক্ষার্থী সংখ্যা প্রায় ৩শজন। এ অবস্থায় সবমিলিয়ে প্রতিদিন প্রায় ৪০ থেকে ৫০ শিক্ষার্থী উপস্থিত হয়। গণিত, জীববিজ্ঞান, ইংরেজী ও শারীরিক সহ ১২টি বিষয়ের শিক্ষকের পদ শূন্য থাকায় শিক্ষা কার্যক্রম দারুনভাবে ব্যহত হওয়ার ফলে স্কুলে শিক্ষার্থী উপস্থিতি দিন দিন কমে যাচ্ছে। প্রায় শতাধিক শিক্ষার্থীরা আক্ষেপ করে যুগান্তরকে বলেন, শিক্ষক স্বল্পতার কারনে ক্লাশের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলি এখনো পড়ানো হচ্ছে না। বছরের প্রায় সাত মাস চলছে তাই অবিভাবকরা দারুন উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠায় ভোগছেন।

এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক মোঃ আব্দুর গফুর এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি আমার সাধ্যমত উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ বরাবর শিক্ষক চেয়ে আবেদন করা সত্বেও এর সমাধান না হওয়ায় স্বল্প শিক্ষক দিয়েই স্কুলের পাঠদান কার্যক্রম চালাচ্ছি। এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আরিফা আখতার বলেন, আমি এখানে নতুন এসেছি, বিষয়টি আমি শুনেছি, অচিরেই শিক্ষক চেয়ে প্রয়োচনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

স্কুলে শিক্ষক না থাকায় বাধ্য হয়ে অবিভাবগন বিভিন্ন কোচিং সেন্টারে উচ্চ বেতনে পাঠদান চালাচ্ছেন যাহা অনেক অবিভাবকের পক্ষে কষ্টকর হয়ে পড়েছে। এলাকাবাসী ও অবিভাবকগন এ ব্যাপারে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ সহ মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।

 

কিউএনবি/বিপুল /২০শে জুলাই, ২০১৮ ইং/বিকাল ৫:২৪