১৩ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ২৯শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১০:১৩

ড. নেয়ামত উল্যা ভূঁইয়া’র কবিতাঃ সংগ্রামে সংযমে

 

সংগ্রামে সংযমে

=======================

 

বাবা বলতেন– সংগ্রামি হও,
মা বলতেন– সংযমি হও,
তাঁদের দ্বৈত স্বরে বাজে যেন অন্তরে,
অসুরের অনাচার কেন এত সও?
সংগ্রাম ও সংযমে
সমাজের বোঁঝা কাঁধে লও।।

যে মাটির মমতায়
সোহাগের শৈশব গড়েছ,
যে ধূলোর সৈকতে
স্বপ্নের খেলাঘর রচেছ,
সেই ধূলো-কাদা-জলে
প্রাণ ভরে হেসে খেলে
সে মাটির মত খাঁটি হও–
সংগ্রাম ও সংযমে
সমাজের বোঁঝা কাঁধে লও।।

খেলার সাথিরা যারা
পরাজয় গ্লাণি নিয়ে
পিছু পড়ে আছে ম্রিয়মাণ,
নিপতিত দুর্গত
দুর্ভাগা সাথিদের
উত্থানে কর আহবান;
আগে নিজে হও আগুয়ান
অচেতনে প্রাণ কর দান।

আগুপিছু সব ভুলে
হাত ধরে আন তুলে,
সমবেত স্বরে গাও জীবনের গান;
মরা নদে জাগে যেন জোয়ারের বাণ।

তোমার বুকের দমে 
দম দাও অক্ষমে
বল তুমি পর কেউ নও,
তাদের প্রাণের ব্যথা 
তোমার মুখের কথা
একতানে সুর তুলে কও,
বিপন্ন মানুষের বিষণ্ণ ব্যাকুলতা
সহমর্মির মত বও–
সংগ্রাম ও সংযমে সমাজের বোঁঝা কাঁধে লও।।

বাবা বলতেন– সংগ্রামি হও,
মা বলতেন– সংযমি হও,
তাঁদের দ্বৈত স্বরে বাজে যেন অন্তরে
মুখ বুঁজে কেন এত অনাচার সও?
সংগ্রাম ও সংযমে
সমাজের বোঁঝা কাঁধে লও।।

 

কিউএনবি/বিপুল/১৮ই জুলাই, ২০১৮ ইং/সকাল ১০:২৭