২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৯ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৩:৪৩

ফেনীর ফুলগাজী স্কয়ার হাসপাতালে পরীক্ষার যন্ত্রে রোগীর ভুল রিপোর্ট!

 

আবদুল্লাহ রিয়েল,ফেনী প্রতিনিধি : আট বছরের শিশু রাফিজা আকতার অসুস্থ হলে তার বাবা ফুলগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসক রাফিজার রক্ত পরিক্ষার জন্য একটি কাগজে লিখে দেন। শিশুর বাবা আবদুল হালিম রক্ত পরীক্ষার জন্য যান ফুলগাজী স্কয়ার হাসপাতালে। কিন্তু মেয়ের রক্ত পরীক্ষার রিপোর্টে দেখা যায় রাফিজার ৩২০ টাইফয়েড হয়েছে।

শিশু রাফিজার বাবা আবদুল হালিমের দাবি, তাকে যে রিপোর্ট দিয়েছিলেন সেখানে তার মেয়ের নাম রফিক (৩৮) লেখা ছিলো। এদিকে রিপোর্ট অনুযায়ী ফুলগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক রাফিজাকে টাইফয়েডের ইন্জেকশন দিলে তার অবস্থার দ্রুত অবনতি ঘটে।পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাফিজাকে ফেনীতে নেয়া হয়।

এঘটনায় শিশুর বাবা আবদুল হালিম গত ১২ জুলাই ফুলগাজী স্কয়ার হাসপাতালের মালিক ইয়াছিন সাদেক বিপ্লব ও হাসপাতালের ম্যানেজার মো.মামুন মিয়াকে বিবাদী করে ফুলগাজী থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। বাদীর লিখিত অভিযোগে জানাযায়, তার মেয়ে রাফিজা আকতারের কোনও টাইফয়েড জ্বর হয়নি। কিন্তু ফুলগাজী স্কয়ার হাসপাতালের কর্তৃপক্ষের ভুলের কারণে তাঁর মেয়ে মৃত্যু শয্যায় ছিলো। তিনি মনে করেন স্কয়ার হাসপাতাল কতৃপক্ষের গাফলতিতে এসব ভুলভাল চিকিৎসা হচ্ছে।

জানতে চাইলে ফুলগাজী স্কয়ার হাসপাতালের ম্যানেজার মো. মামুন মিয়া বলেন, এটা তাদের ভুল হয়ে গেছে। ভবিষ্যতে এধরনের আর কোনও ভুল হবেনা এবং তিনি হাসপাতালের পক্ষ থেকে বাদীর নিকট ক্ষমা চাওয়ার বিষয়টি সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। ফুলগাজী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.হুমায়ূন কবির ফুলগাজী স্কয়ার হাসপাতালের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগের কথা সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শনিবার ১৪ জুলাই রাতে দুপক্ষের লোকজন থানায় এসে ভবিষ্যতে এই ধরনের কাজ তারা আর করবেন না বলে বাদীর নিকট ক্ষমা চেয়ে বিষয়টি মিমাংসা করেছেন। উল্লেখ, এর আগেও একাধিকবার চিকিৎসা ক্ষেত্রে অনিয়মের অভিযোগ ওঠে ফুলগাজী স্কয়ার হাসপাতালের বিরুদ্ধে।

কিউএনবি/রেশমা/১৭ই জুলাই, ২০১৮ ইং/দুপুর ১২:০৭