১৮ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সন্ধ্যা ৬:১৭

কর্মস্থলকে আনন্দময় করতে..

কর্মীদের প্রশংসা করুন

কর্মী যদি অনুভব করে কাজের জন্য তাঁর প্রশংসা করা হচ্ছে না তবে তাঁর উৎপাদনশীলতা ও কর্মদক্ষতা কমে যেতে পারে। তাই, অর্জন যত ক্ষুদ্রই হোক না কেন আপনার দলের সবার প্রশংসা করুন। এটি করতে মাঝেমধ্যে সভারও আয়োজন করতে পারেন।

কর্মীদের বোনাস বা পুরস্কার দিন

ভালো কাজের জন্য কর্মীদের বোনাস বা পুরস্কারের ব্যবস্থা রাখুন। কর্মীদের মাঝেমধ্যে ‘ঘরে বসেই কাজ’-এর সুযোগ বা ক্লান্তি দূর করতে কর্মঘণ্টা লাঘব করতে পারেন। এতে আপনি দারুণ ফল পাবেন, সন্দেহ নেই।

‘গেট টুগেদার’ বা মিলনমেলার আয়োজন

মাঝেমধ্যে কর্মস্থলে কর্মীদের মধ্যে আনন্দঘন মিলনমেলার আয়োজন করুন। এতে তারা নিজেদের মধ্যে ব্যক্তিগত পর্যায়ের সম্পর্ক ও যোগাযোগ স্থাপন করতে সমর্থ হবে।

ক্ষমতায়ন করুন

কর্মস্থলে নানা বিষয়ে কর্মীদের পরামর্শ গ্রহণ করুন। কর্মীদের স্বাধীনভাবে সিদ্ধান্ত নিতে প্রেরণা দিন। এর ফলে তারা ক্ষমতায়িত হবে, লক্ষ্য অর্জনে প্রেষণা পাবে।

মতামত গ্রহণ করুন

আপনি যখন কোনো সুনির্দিষ্ট প্রকল্প বা বিষয়ে কর্মীদের মতামত প্রত্যাশা করবেন, তখন কর্মীরা নিজেদের মূল্যায়িত মনে করবে। ফলে কর্মস্থল আরো গতিশীল ও উৎপাদনশীল হবে, কাজের পরিবেশ থাকবে আনন্দদায়ক।

— টাইমস জবস অবলম্বনে

 

কিউএনবি/ অদ্রি/ ১৪.০৭.২০১৮/  দুপুর ১.১০