১৯শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সন্ধ্যা ৭:৩২

বান্দরবান অংমেচিং মারমাকে হত্যা 

 

রতন কুমার দে (শাওন)বান্দরবান প্রতিনিধি : অংমেচিং মারমা আত্মহত্যা করেনি, তাকে পরিকল্পিত ভাকে হত্যা করা হয়েছে, শুক্রবার (১৩ জুলাই )সকালে চট্টগ্রামের রাউজানের হিংগালায় অবস্থিত ওয়ারা পুঞঞা বৌদ্ধ অনাথালয় পরিদর্শন করে বিএইচআরসি এর বান্দরবান জেলার সভাপতি কাঞ্চনজয় তঞ্চঙ্গ্যা মানবাধিকার কমিশনের বান্দরবান জেলার সভাপতি (জেলা পরিষদ সদস্য) কাঞ্চনজয় তঞ্চঙ্গ্যা এ কথা বলেন।

এসময় তিনি আরো বলেন, অনাথালয়ে থাকা শিক্ষার্থীদের সাথে আলাপ করে আমরা জানতে পেরেছি, অংমেচিং এর লাশ ঝুলন্ত অবস্থায় থাকলেও তার শরীর পানিতে ভিজা ছিল এবং পাশের পুকুরে তার একটি জুতা ভাসমান অবস্থায় ছিল। এছাড়া আত্মহত্যার কোন কারন বা চিহ্ন এ লাশের গায়ে ছিলনা বলেও জানান তিনি।

এ সময় বান্দরবান পৌর শাখার সভানেত্রী নীলিমা আক্তার নীলা, পৌর শাখার নির্বাহী সভাপতি জর্জ ত্রিপুরা ও বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের বান্দরবান পৌরশাখার নির্বাহী সভাপতি (২) রাউজানের ওয়ারাপুঞঞা বৌদ্ধ অনাথালয় পরিদর্শন করেন।

এসময় উপস্থিত বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের পৌরশাখার সভানেত্রী নীলিমা আক্তার নীলা বলেন, আমরা আজ অংমেচিং এর মৃত্যুর কারন উদঘাটন করতে এসেছি। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ও আশ্রমে থাকা শিক্ষার্থীদের সাথে আলাপ করে আমরা বুঝতে পেরেছি এটি আত্মহত্যা নয়, এটি একটি পরিকল্পিত হত্যা। তারা বলেন, আমরা এর সুষ্ঠু বিচারের জন্য যতটুকু সহযোগিতা করার দরকার, নিহতের পরিবারকে ততটুকু সহযোগিতা করব।

এ ঘটনার পর থেকেই অবস্হানরত ২৫ জন ছাএ ছাএীরা আতঙ্কের মধ্যে আছে। ওরা সবাই নিজ নিজ বাড়িতে ফেরত যেতে চায় । এ বিষয়ে তারা স্থানীয় প্রশাসনসহ সকলের সহযোগিতা চেয়েছে।

প্রসঙ্গত: রাউজানের এ ওয়ারাপুঞঞা বৌদ্ধ অনাথালয়ের রান্না ঘর থেকে গত ৬জুন বৃহষ্পতিবার সকালে বান্দরবানের রুমার বাসিন্দা ৭ম শ্রেনীর ছাএী অংমেচিং এর ঝুলন্ত লাশ পাওয়া গিয়েছিল।

এছাড়া এই প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত স্বর্গীয় শ্রীমৎ ঞ্জানজ্যোতি মহাথের ২০০২ সালে একই স্হানে আততায়ীর হাতে নিহত হন।

অকালে ঝড়ে যাওয়া অংমেচিং ও তার পরিবারের প্রতিগভীর সমবেদনা জানিয়ে সুষ্ঠু বিচার চেয়েছেন বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের বান্দরবান জেলার সভাপতি (জেলা পরিষদ সদস্য) কাঞ্চনজয় তঞ্চঙ্গ্যা, পৌর শাখার সভানেত্রী নীলিমা আক্তার নীলা ও পৌর শাখার নির্বাহী সভাপতি জর্জ ত্রিপুরাসহ নেতৃবৃন্দরা।

কিউএনবি/রেশমা/১৪ই জুলাই, ২০১৮ ইং/বিকাল ৩:১১