১৮ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১০:৩২

বান্দরবানে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস পালিত

 

রতন কুমার দে (শাওন)বান্দরবান প্রতিনিধি : ”পরিকল্পিত পরিবার সুরক্ষিত মানবাধিকার”(ঋধসধরষু চষধহহরহম রং ধ ঐঁসধহ জরমযঃ)এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বুধবার সকালে বান্দরবানে নানা আয়োজনের মধ্যে দিয়ে বিশ^ জনসংখ্যা দিবস পালিত হয়েছে।

দিবসটি উপলক্ষে সকালে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের কার্যালয় থেকে একটি বর্নাঢ্য র‌্যালি বের হয়, র‌্যালিতে ব্যানার ও প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি কর্মকর্তা,এনজিও কর্মী ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীরা অংশ নেয় র‌্যালিটি পার্বত্য জেলা পরিষদ কার্যালয়ের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে জেলা পরিষদের সভা কক্ষে গিয়ে শেষ হয়।

র‌্যালিত্তোর আলোচনা সভা জেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।বান্দরবান পরিবার-পরিকল্পনা বিভাগের উপ-পরিচালক ডাঃ অংচালু এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নুরুল আবছার, সিভিল সার্জন ডাঃ অংসুই প্রু,বান্দরবান প্রেস ক্লাব সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাচ্চু,জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিল সংস্থার বান্দরবান জেলা কর্মকর্তা ধনরঞ্জন ত্রিপুরা,এফপিসিএস বান্দরবান ডিস্ট্রিক কনসালটেন্ট ডাঃ নুরুসছাফা চৌধুরী, আর এইচ স্টেপ মেডিকেল অফিসার ডাঃ মেথুই চিং,(মিথু ইসলাম),মানবাধকার কর্মী লীলিমা বেগম,বান্দরবান সরকারী মহিলা কলেজের প্রভাষক জান্নাতুল মাওয়া প্রমুখ।

আলোচনা সভায় অতিথিরা বলেন,সঠিক পরিবার-পরিকল্পনা গ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশের জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ সম্ভব। বাংলাদেশে এখ সময় পরিবার-পরিকল্পনা কাকে বলে সেটা জনগন সেটা জান্তে পারে নাই,কিন্তুু বর্তমান সরকার,পরিবার-পরিকল্পনা গ্রহণে কিকি সুবিধা,আর এই পদ্ধতি গ্রহণ না করলে কি কি সমস্যা হতে পারে তা ভালো ভাবে বিভিন্ন মাধ্যমে প্রচার-প্রশার করেছেন,যার ফলে দেশের জনগণ অনেক সচেতন হয়েছে। পূর্বে এক পরিবারে ১০ থেকে ১২জন সন্তান থাকতে,বর্তমানে সচেতনার বৃদ্ধির ফলে ১জন অথবা ২জন সন্তান নিচ্ছে।

পরিবার-পরিকল্পনা গ্রহণে বর্তমানে পুরুষ ও মহিলাদের জন্য অনেক রকম আধুনিক পদ্ধতি বের হয়েছে।অনেকে সেই পদ্ধতি গুলো সাধরে গ্রহণ করছে।আগামীতে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশ আরো উন্নতি লাভ করবে।

এছাড়াও র‌্যালি ও আলোচনা সভায় অন্যাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান পরিবার-পরিকল্পনা অফিসের সিনিয়র অফিসার আলহাজ মোঃ বশির,মোঃ আলমগীর প্রমুখ।পরে সভাপতি উপস্থিত সকলকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানিয়ে আলোচনা সভার সমাপ্তি ঘোষনা করেন।

 

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/১১ই জুলাই, ২০১৮ ইং/বিকাল ৫:১৫