২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৪:২৭

আজ বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি

 

ডেস্ক নিউজ : সরকারি কাজে স্বচ্ছতা ও দায়বদ্ধতা বৃদ্ধি, সম্পদের সদ্ব্যবহার এবং প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা উন্নয়নে পঞ্চমবারের মতো মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সঙ্গে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) করতে যাচ্ছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। বুধবার সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শাপলা হলে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য ৫১টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সঙ্গে এপিএ চুক্তি হবে। এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উপস্থিত থাকবেন।

গতকাল মঙ্গলবার সচিবালয়ে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) এন এম জিয়াউল আলম এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, আগামী এক বছর মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলো কী কাজ করবে সেই কাজের একটি অঙ্গীকারনামা যেটাকে আমরা এপিএ বা বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি বলি, সেই অঙ্গীকারনামাটি বুধবার স্বাক্ষরিত হবে। বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তিতে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিনিধি হিসেবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রীর প্রতিনিধি হিসাবে সিনিয়র সচিব ও সচিবরা সই করবেন। সিনিয়র সচিব ও সচিবরা চুক্তি সইয়ের পর তা প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর করবেন।

অনুষ্ঠানে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি বাস্তবায়ন সফলতার জন্য তিন মন্ত্রণালয় ও বিভাগকে প্রধানমন্ত্রী সার্টিফিকেট দিয়ে সম্মানিত করবেন জানিয়ে সচিব বলেন, বার্ষিক কর্মসম্পাদক চুক্তি বাস্তবায়নে সর্বোচ্চ নম্বর পাওয়া মন্ত্রণালয় তিনটি হচ্ছে পরিকল্পনা কমিশনের বাস্তবায়ন, পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগ-আইএমইডি (প্রাপ্ত নম্বর ৯৯ শতাংশ), মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় (প্রাপ্ত নম্বর ৯৮ দশমিক ৫১ শতাংশ) ও কৃষি মন্ত্রণালয় (প্রাপ্ত নম্বর ৯৭ দশমিক ৭৪ শতাংশ)।

কিউএনবি/রেশমা/৪ঠা জুলাই, ২০১৮ ইং/সকাল ১১:৫৯