২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১১:১৪

চৌগাছায় ব্রাজিল বাড়ীতে বইছে আনন্দের ফোয়ারা

 

এম এ রহিম,চৌগাছা (যশোর) সংবাদদাতা : যশোরের চৌগাছায় বিশ্বকাপ ফুটবল খেলাকে ঘিরে ব্রাজিল বাড়ীতে বইছে আনন্দের ফোয়ারা। বিশ্বকাপ ফুটবল মানেই আনন্দ ও উল্লাস ছড়ানো, দল সমর্থিত ভক্ত সমর্থকদের নানা কর্মকান্ড চলে আসছে বহুকাল ধরে। চলতি বিশ্বকাপেও তার কোন কমতি নেই।

প্রিয় দলের সমর্থনে শহর থেকে শুরু করে প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের বাড়ির ছাদ কিংবা গাছে গাছে শোভা পাচ্ছে বড় বড় পতাকা। এমনই এক ভক্ত যশোর জেলার চৌগাছা পৌর শহরের বাসিন্দা জামির হোসেন।তার প্রিয় দল ব্রাজিল, তিনি নিজ বাস ভবণটি রং দিয়ে এঁকেছেন ব্রাজিলের অসংখ্য পতাকা আর ফুটবল।শুধু তাই না এই ভক্ত তার দ্বিতল ভবনটির পুরোটাই ব্রাজিলের পতাকা এঁকে অন্যরকম সাজে সাজিয়েছেন আর বাড়িটির নামকরণ করেছেন ব্রাজিল বাড়ি।

স্থানীয়রাসহ আশপাশের উপজেলা থেকে প্রতিদিনই ব্রাজিল দলের সমর্থকরাসহ শতশত মানুষ বাড়িটি দেখতে ভিড় করছেন।জানাযায়, ফুটবল সব থেকে জনপ্রিয় একটি খেলা।নিজ দলের সমর্থনে কেউ তৈরি করেন পতাকা, কেউ নিজ শরীরে পরেন প্রিয় দলের জার্সি আবার অনেকে সাজেন রংবেরঙের সাজে।তবে সম্পূর্ণ ব্যতিক্রম এক ভক্তের সন্ধান পাওয়া গেছে যশোর জেলার চৌগাছা পৌর শহরের চৌগাছা-কোটচাঁদপুর সড়কের ইছাপুর বটতলা মোড়ে।

তিনি নিজের তৈরি করা বাড়িটি ব্রাজিলের পতাকার রং দিয়ে সাজিয়ে তুলেছেন।সম্পূর্ণ বাড়িটিকে এঁকেছেন ব্রাজিল পতাকা আর ফুটবল।এরজন্য তিনি লক্ষাধিক টাকা ব্যয় করেছেন।ব্রাজিলের অন্ধভক্তের নাম জামির হোসেন (৩০)।তিনি চৌগাছা পৌর শহরের ২ নং ওয়ার্ডের পাঁচনামনা গ্রামের মৃত জিনাইতুল্লাহর ছেলে।পৈত্রিক ভিটা ছেড়ে তিনি চৌগাছা-কোটচাঁদপুর সড়কের ইছাপুর বটতলা নামক স্থানে মেইন সড়কের পাশে নির্মাণ করেছেন একটি দ্বিতল ভবন।পরিবার পরিজন নিয়ে তিনি এই বাড়িটিতে বসবাস করেন।

তিনি চৌগাছা শহরের একজন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী।বিশ্বকাপ ফুটবল উপলক্ষে ফুটবল পাগল এই ব্যক্তি তার বাড়িটি ব্রাজিলের পতাকার রঙে রাঙিয়েছেন।বর্তমানে অপরুপ সৌন্দর্য বহন করছে তার বাড়িটি।ব্রাজিল ভক্ত ছাড়াও সাধারণ উৎসুক জনতা প্রতি দিনই এই বাড়িটি দেখতে সেখানে ভিড় করছেন।জনতার সরব উপস্থিতিতে নিজেকে ধন্য মনে করছেন ভক্ত জামির হোসেন।

এ ব্যাপারে ব্রাজিল ভক্ত জামির হোসেন বলেন, প্রতি চার বছর পর পর বিশ্বকাপ ফুটবল এলে আমার প্রিয় দলকে আমি সর্বাক সমর্থন জানিয়ে যায়।তারা জিতলে আমি খুশি হই কিন্তু হারলে ব্যাপক কষ্ট পাই।

 

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/২৩শে জুন, ২০১৮ ইং/বিকাল ৫:০৯