২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ১১ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১:৩৫

সরিষাবাড়ীতে ভাতিজার লাথির আঘাতে চাচি নিহত, হত্যাকারী আটক

 

জাকারিয়া জাহাঙ্গীর,সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি : জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে বসত বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধের জের ধরে আপন ভাতিজার লাথির আঘাতে জমিলা বেগম (৬৮) নামে এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার ডোয়াইল ইউনিয়নের ডোয়াইল পশ্চিমপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। হত্যাকারী ভাতিজা লাল মিয়া লালুকে (৪৫) আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সুত্র জানায়, ডোয়াইল পশ্চিমপাড়ার মৃত কাজিম উদ্দিনের ছেলে লাল মিয়া লালু ও তার চাচা মোয়াজ্জেম হোসেনের মধ্যে বসতবাড়ির যাতায়াতের সীমানা নিয়ে অনেকদিন ধরে বিরোধ ছিল।ওই বিরোধের জের বৃহষ্পতিবার বিকেলে উভয়পক্ষের মধ্যে তর্ক হয়।

এ নিয়ে সন্ধ্যার দিকে ঝগড়া সৃষ্টি হলে মোয়াজ্জেম হোসেনকে তাঁর ভাতিজা মারধর শুরু করে।এ সময় তাঁর স্ত্রী জমিলা বেগম ঘটনাস্থলে এগিয়ে গেলে লাল মিয়া ক্ষিপ্ত হয়ে তার চাচিকে এলোপাথারী লাথি মারেন।এতে বৃদ্ধা জমিলা ঘটনাস্থলেই নিহত হন।

এ ঘটনায় ছোহরাব আলী (৬৫) নামে এক বৃদ্ধ ঘটনাস্থলে এগিয়ে গেলে লাল মিয়া তাকেও বেধড়ক আঘাত করে নাক কেটে দেন।এ সময় লাল মিয়া পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে এলাকাবাসী তাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।এছাড়া গুরুতর আহত ছোহরাব আলী ও মোয়াজ্জেম হোসেনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ডোয়াইল ইউপি চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন রতন জানান, নিহত বৃদ্ধা হত্যাকারী লাল মিয়ার আপন চাচি।সে এলাকার কলহপ্রিয় লোক।ইতোপূর্বেও বিভিন্ন কারণে সে পুলিশের হাতে আটক হয়েছিল।

এ ব্যাপারে সরিষাবাড়ী থানার ওসি রেজাউল ইসলাম খান বলেন, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।হত্যাকারী কিছুটা অসুস্থ্য থাকায় পুলিশ পাহারায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।থানায় হত্যা মামলা দায়েরের পর আটককৃতকে জেলা হাজতে পাঠানো হবে।

 

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/২২শে জুন, ২০১৮ ইং/বিকাল ৪;১৮