১২ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ২৮শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১১:৫৮

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির বাইশারীতে একরাতে ৬ বসত বাড়ীতে ডাকাতি

 

রতন কুমার দে (শাওন),বান্দরবান প্রতিনিধি : বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারীতে একরাতে ৬ বসত বাড়ীতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।

রবিবার ভোর ৩টা থেকে ৪টার মধ্যে ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড হরিনখাইয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।এসময় ডাকাত দলের সদস্যরা ৪ ভরি স্বর্ণ, অর্ধলক্ষাধিক নগদ টাকা সহ বিভিন্ন মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

ডাকাত কবলিত বসত ঘর গুলো হচ্ছে- নারিচবুনিয়া নতুন চাক পাড়া সংলগ্ন নুরুল ইসলাম, হরিনখাইয়া এলাকার মোস্তফা কামাল, একই গ্রামের রোকেয়া বেগম, নুরুল বশর, ফাতেমা বেগম ও আবু বক্করের বসত বাড়ী।

গৃহকর্তা মোস্তফা কামাল জানান, ভোর টার দিকে একদল ডাকাত তার ঘরের দরজা ভেঙ্গে বাড়ীতে ঢুকে দেড় ভরি স্বর্ণ, নগদ ৪ হাজার টাকা সহ বিভিন্ন মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।মুখোশ পরিহীত থাকায় তাদের চিহ্নিত করা যায়নি।

গৃহকর্তা নুরুল ইসলাম জানান, ৯/১০ জনের সশস্ত্র মুখোশধারী ডাকাত দলের সদস্যরা তার বাড়ীতে ঢুকে পরিবারের সদস্যদের বেদড়ক মারধর করে ২ ভরি স্বর্ণ, নগদ ৩০ হাজার টাকা নিয়ে যায়।

অন্যান্য গৃহকর্তারা জানান, তাদের বসত বাড়ীতে একই কায়দায় সশস্ত্র ডাকাত দলের সদস্যরা ঢুকে স্বর্ণ, নগদ টাকা, মোবাইল ফোন, টর্চ লাইট সহ বিভিন্ন মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

খবর পেয়ে বাইশারী তদন্ত কেন্দ্রের সহকারি ইনচার্জ এসআই আবু মুসা সঙ্গীয় ফোর্স সহ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এটি ডাকাতির মত ঘটনা নয়। দূর্বৃত্তরা ৬ বসত বাড়ীতে হানা দিয়ে কিছু টাকা, স্বর্ণ ও মালামাল নিয়ে যায়।

উক্ত ঘটনায় সম্ভাব্য স্থানে অভিযান পরিচালনার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলেও জানান তিনি।এছাড়া ডাকাতির ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আলম, স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুর রহিম সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ।

এদিকে দীর্ঘদিন পরে এলাকায় পূনরায় ডাকাতির ঘটনা ঘটায় প্রত্যন্ত অঞ্চলে বসবাসকারী লোকজনের মাঝে আতংক বিরাজ করছে।আতংক কাটাতে ডাকাত কবলিত সম্ভাব্য এলাকা গুলোতে পুলিশের পাশাপাশি বিজিবি টহলের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্থক্ষেপ কামনা।

কিউএনবি/রেশমা/১৭ই জুন, ২০১৮ ইং/দুপুর ২:১১