২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৯ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৯:৩৪

মৌলভীবাজারের মনু’র বাঁধে ভাঙন, শহরের একাংশ প্লাবিত

মৌলভীবাজারের মনু নদের প্রতিরক্ষা বাঁধে ভাঙন দেখা দিয়েছে। এতে পৌরসভার বড়হাট এলাকা প্লাবিত হয়েছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে ওই এলাকার মানুষ।গতকাল শনিবার (১৬ জুন) রাত ২টার দিকে শহরতলীর বারইকোনা এলাকায় এই বাঁধে ভাঙন দেখা দেয়। আর এরইমধ্যে দ্রুত গতিতে আশপাশে ছড়িয়ে পড়েছে পানি। তবে পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) বলছে মূল শহর প্লাবিত হওয়ার সম্ভাবনা কম।

সরেজমিনে দেখা যায়, পৌরসভার বরহাট ছাড়াও কুসুমবাগ, বড়কাপন ও যোগীডর এবং সদর উপজেলার হিলালপুর ও শেখেরগাওঁ এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। শহরতলীর বড়হাট এলাকা প্লাবিত হয়ে শহরের দিকে গড়াচ্ছে পানি। বাঁধ ভাঙার দেড় ঘণ্টার ব্যবধানে পানি এসে ঠেকেছে শহরের কুসুমবাগ রহমান ফিলিং স্টেশন পর্যন্ত। যার ফলে হুমকির মুখে পড়েছে শহর।

এদিকে, সম্ভাব্য আক্রান্ত এলাকা হচ্ছে দূর্লভপুর, ঘরুয়া, বাহারমর্দন, সমপাশি, ভুজবল, খিদুর, দ্বারক, পাগুলিয়া, মোস্তফাপুর এলাকা ও তার আশপাশের এলাকা। এসব এলাকার সকলকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।অপরদিকে, ভাঙনকবলিত এলাকায় সেনাবাহিনী, পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও প্রশাসনের কর্মীরা পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে তৎপর রয়েছেন। তবে এসবের মধ্যেও আতঙ্কে বাসিন্দারা এদিকওদিক ছুটোছুটি করছেন মালামাল নিয়ে। এলাকাজুড়ে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

মৌলভীবাজার পাউবো নির্বাহী প্রকৌশলী রণেদ্র শংকর চক্রবর্তী বলেন, তিন দিন ধরে বিপদসীমার ওপরে পানি থাকায় বাঁধ ফেটে বেশ বড় জায়গাজুড়ে ভাঙন দেখা দিয়েছে। সেনাবাহিনী চেষ্টা করেছে পানি আটকানোর কিন্তু বেগ বেশি হওয়ায় বস্তা ফেলেও তা ঠেকানো যায়নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে, পানি মূল শহরকে প্লাবিত করতে পারবে না।

 

কিউএনবি/অদ্রি আহমেদ/ ১৭.০৬.২০১৮/ সকাল ৯.৪৫