১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৭:৫৯

পুলিশের সরকারি মুঠোফোন ও বিড়ম্বনা!

নিউজ ডেস্কঃ  ঘটনা ১: গত পরশুর আগের রাতে এক ভদ্রলোক ফোন করলেন মধ্যরাত /ভোর ৪:৩৫ মিনিটে!! সম্ভবত জানতে আমি ঠিকঠাক ঘুমাচ্ছি কিনা!! ফোন ব্যাক করতেই বলে উঠলেন, “সরি হাতের ঘষা লাইগা আপনার কাছে কল গেছে গা।” আমার মেয়েটার পাতলা ঘুম ভেঙে গেলো! সেই ঘুম ঘুমালো ০৩ ঘণ্টা পর- অর্থাৎ আমার সহধর্মিনী’র ঘুম হারাম!

ঘটনা ২: এরপর গত পরশু দিন এক ভাই ফোন করলেন ঠিক ভোর ০৫টা ০৩ মিনিটে! খুব সকালে সরকারি ফোন বেজে উঠলে ভয় পেয়ে যাই, এলাকায় খারাপ কিছু ঘটলো কিনা এই ভেবে! তিনি ফোনে মেসেজ পাঠালেন পর মুহূর্তেই। ”বিষয় মোবাইল চুরি অথবা ছিনতাই সম্পর্কিত”। তাঁর জানা থাকার কথা এরূপ ঘটনা ঘটলে জিডি করতে হয়; তথাপি তিনি কল করেছেন এবং যথারীতি আমার মেয়েটার ঘুম ভেঙে যায়! শুক্রবার বিধায় একটু দেরিতে অফিসে যাবো তাই মেয়েটাকে ঘুম পাড়ানোর চেষ্টা করলাম। ০৪ ঘণ্টায়ও আর ঘুম পাড়াতে পারিনি! সাথে উপহার হিসেবে আখেরি জুমা মিস করেছি- আমি বদনসীব!কারণ ঘুমাতে না পেরে শেষে আমার চোখ জোড়াও ঘুমিয়েছিল নামাজের মুহূর্তে!

ঘটনা ৩: গতকাল রাতে ভোর ০৪টা ১৮ মিনিট আরেক ভদ্রলোক ফোন করলেন এবং জানালেন “সরি আমার বন্ধুকে ফোন করতে যেয়ে আপনাকে ফোন করে ফেলেছি!” তাঁর দুঃখ প্রকাশের প্রতি যত্নশীল হওয়ার সুযোগ না থাকলেও তাকে বুঝিয়ে বলতে হলো ভদ্র মানুষেরা এত সকালে অপ্রয়োজনে নক করেন না!

ঘটনাসমূহের নৈতিক শিক্ষা : পুলিশের সরকারি মোবাইল ২৪ ঘণ্টা খোলা রাখতে হয় যেহেতু আমরা সর্বদাই অন ডিউটি! এমন কোনো বিপদ যার জন্য কোনো কূল কিনারা পাচ্ছেন না, মুহূর্তেই সহায়তা দরকার, আমাদের ফোন করুন। সেবা দিতে আমরা বাধ্য। আপনাদের সেবা প্রদানই আমাদের দায়িত্ব।

কিন্তু অপ্রয়োজনে, গুরুত্বপূর্ণ কারণ ছাড়া ফোন করে আমাদের ও আমাদের পরিবারের দয়া করে বারোটা বাজাবেন না! দয়া করে ভুলবেন না আমরা ভিনগ্রহ থেকে আসা কোনো প্রাণী নই, আপনাদের মত রক্ত মাংসে গড়া মানুষ। প্রতিদিন গড়ে ১৪ ঘণ্টা সরাসরি কাজ করে মোবাইলে কথপোকথন চলতেই থাকে… সেই হিসেব করলে মোট ১৮ ঘণ্টার উপরে সার্ভিস দিয়ে থাকেন আমাদের অনেকেই!! এই রমজানে দৃশ্যমান পরিশ্রম সবচেয়ে বেশি করতে হয়েছে পুলিশকেই!

না, এতে আমাদের কোনো কষ্ট নেই। জীবনের অপরিহার্য অংশ হিসেবেই পেশাককে মেনে নিয়েছি।
কিন্তু আমাদেরও পরিবার আছে, তাদেরও বিশ্রাম আছে। আমাদের ছোট্ট বাচ্চাগুলোর বুঝি ঘুমও থাকতে নেই। আপনার সাময়িক খামখেয়ালিপনা আমাদের মনোবেদনার কারণ হয়ে দাঁড়ায়! সরকারি ফোন ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকে বিধায় অপ্রয়োজনেও কড়া নাড়বেন, সেই জায়গা থেকে বেরিয়ে আসুন প্লিজ। ভাল থাকুন, ভাল রাখুন!

(বি. দ্র. ঈদের দিনে এরকম কঠিন একটি স্ট্যাটাস দেয়ার জন্য দুঃখিত। যখন আজ সকাল ৬:৩০টায় আপনাকে ঘুম থেকে উঠতে হবে ঈদ জামাতের তদারকি করতে, তখন দুই ঘণ্টা আগে কেউ ঘুম ভাঙিয়ে দিলে, আমাদের মনেও ক্ষোভ সঞ্চার হওয়াটা স্বাভাবিক! সরকারি ফোন আমরা ২৪ ঘণ্টায় বন্ধ রাখতে পারি না, তাই অপ্রত্যাশিত সময়ে অপ্রয়োজনে নক করা থেকে বিরত থাকুন প্লিজ)। ঈদ মোবারক

লেখক: সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার (ডেমরা জোন)

(ফেসবুক পেইজ থেকে সংগৃহীত)

 

কিউএনবি/নিল/১৬/জুন