২১শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১১:০১

বড়পুকুরিয়া কয়লাখনির শ্রমিকদের ২২ দিনের আন্দোলনে ১শত ৩৫ কোটি টাকার ক্ষতি

 

মো: আফজাল হোসেন,দিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লাখনির শ্রমিকদের ২২ দিনে আন্দোলনে ১শত ৩৫ কোটি টাকা ক্ষতি। বাংলাদেশের একমাত্র কয়লা খনি দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া। এই কয়লাখনিতে দেশী বিদেশী মিলে প্রায় ১ হাজার ৫ শত কর্মকর্তা কর্মচারী ও শ্রমিক কর্মরত রয়েছেন।

গত ১২ মে থেকে বড়পুকুরিয়া কয়লাখনির শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়ন তাদের ১৩ দফা দাবী আদায়ে আন্দোলন করে আসছিলেন। গত ১২ মে আন্দোলন শুরু থেকে কয়লা খনির ভূ-গর্ভ থেকে কয়লা উত্তোলন বন্ধ হয়ে যায়। বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির ভূ-গর্ভ থেকে প্রতিদিন প্রায় ৪ হাজার থেকে ৪ হাজার ৫শত মেট্রিকটন কয়লা উত্তোলন হতো।

কিন্তু শ্রমিকদের আন্দোলনের কারনে ১২ মে থেকে ২২ জুন পর্যন্ত কয়লা উত্তোলন হতো প্রায় ৯০ হাজার মেট্রিকটন।যার বাজার মূল্য ১শত ৩৫ কোটি টাকা। শ্রমিকদের আন্দোলনের কারনে বড়পুকুরিয়া কয়লাখনির এই ক্ষতি সাধন হয়।বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির একজন কর্মকর্তা জানান, খনির শ্রমিকরা তাদের দাবী দাওয়া নিয়ে বারবার অহেতুক আন্দোলন করার কারনে সরকারের এই বৃহত একটি প্রতিষ্ঠানের অপুরন্ত ক্ষতি হচ্ছে।

এই খনি থেকে সরকার বিপুল পরিমান রাজস্ব্য আয় করেন।অপর দিকে এই খনিটিতে কর্মকর্তা কর্মচারী ও স্থানীয় শ্রমিকরা চাকুরী করায় তাদের জীবন জীবিকার পথ সুগম হয়েছে।বর্তমান বড়পুকুরিয়া কয়লাখনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী আলহাজ হাবিব উদ্দিন আহম্মদ কয়লাখনির দায়িত্ব পাওয়ার পর কয়লাখনির রাজস্ব আয় বৃদ্ধি পেয়েছে।

 

 

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/৪ঠা জুন, ২০১৮ ইং/সন্ধ্যা ৭:২৬