১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সন্ধ্যা ৬:৪৬

চীনা নারীকে পুরুষাঙ্গ দেখালেন বাঙালি যুবক, অতঃপর…

 

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ভারতের কলকাতায় এক চীনা নারী দোকানদারকে পুরুষাঙ্গ দেখানোর অভিযোগে এক যুবকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।১৯ মে, রবিরার বাঁশদ্রোণী থানার সেন্ট্রাল পার্ক এলাকার এ ঘটনা ঘটলেও অভিযুক্ত যুবককে গ্রেফতার করতে দুই দিন লেগে যায়।পুলিশ জানায়, গ্রেফতারকৃত যুবকের নাম প্রসেনজিৎ দাস (২৩)। তিনি স্থানীয় সোনারপুর এলাকার বাসিন্দা।  ঘটনার দিন বিকেল ৩টায় ওই এলাকার একটি গিফট শপে প্রবেশ করেন প্রসেনজিৎ। আর ওই দোকানটি পরিচালনা করেন একজন চীনা নারী।

চীনা নারী পুলিশের কাছে অভিযোগ করে বলেন, ‘দুপুরে কম বয়সী এক যুবক আমার দোকানে ঢুকে প্রথমেই প্রশ্ন করে, ‘রেট কত?’ কিন্তু বাংলায় ভালো পারদর্শী না হওয়ায় আমি ভেবেছিলাম, যুবকটি হয়তো কোনো কিছুর দাম জানতে চাইছেন। এরপর হঠাৎ আমার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে ওই যুবক।

তখন আমি যুবককে ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দেই। এরপর দোকানের অন্য প্রান্তে গিয়ে নিজের প্যান্ট খুলে আমাকে পুরুষাঙ্গ দেখাতে শুরু করেন ওই যুবক।’এ সময় ওই চীনা নারী চিৎকার করলেও দোকানটি কাচে ঘেরা হওয়ায় তা শুনতে পাননি আশপাশের মানুষ।চীনা নারীর দাবি, পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে নিজের কাছে থাকা মোবাইল দিয়ে আক্রমণকারী যুবকের কয়েকটি ছবি তোলেন। পরে অবস্থা বেগতিক দেখে যুবকটি পালিয়ে যান।

ঘটনার পরপরই স্থানীয় বাঁশদ্রোণী থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই নারী। এ সময় তার মোবাইলে তোলা ছবিগুলোও পুলিশকে দেখান। কিন্তু ছবিগুলো খুব অস্পষ্ট থাকায় চেহারা বোঝা যাচ্ছিল না। তাই সনাক্তকরণের জন্য চীনা নারীর বিবরণ অনুযায়ী স্কেচ করানো হয়। ওই স্কেচের সাহায্য নিয়েই সোমবার রাতে সোনারপুর এলাকা থেকে প্রসেনজিৎ নামের ওই যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ।

জিজ্ঞাসাবাদে প্রসেনজিৎ পুলিশকে জানিয়েছেন, ওই রাস্তা দিয়ে প্রায়ই যাতায়াত করেন তিনি। ওই চীনা নারীকে তার খুব পছন্দ।শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত পুলিশ অভিযুক্ত প্রসেনজিতের বিরুদ্ধে ৩৫৪ডি ধারায় মামলা রুজু করেছে।চলতি মাসের শুরুতেই চলন্ত বাসে এক ছাত্রীকে লক্ষ্য করে প্রকাশ্যে হস্তমৈথুন করার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছিল এক ব্যক্তিকে। মাস শেষ না হতেই ফের প্রকাশ্যে যৌনাঙ্গ দেখানোর ঘটনা ঘটল।

 

কিউএনবি/ অদ্রি/ ২৩.০৫.১৮/ সকাল ১০.২০