১৪ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১:১২

খাগড়াছড়ি জেলায় ৭২ ঘন্টা হরতালের ঘোষণা দিয়েছে পার্বত্য অধিকার ফোরাম ও বৃহত্তর পার্বত্য বাঙ্গালি ছাত্র পরিষদ

এম এ আমিন,খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি : দুর্বৃত্তদের ব্রাশফায়ারে নিহত মাইক্রোবাসের ড্রাইভার মো. সজীব হত্যার প্রতিবাদে উত্তাল খাগড়াছড়ি। এ হত্যার প্রতিবাদে শহরে কালোপতাকা, লাঠি মিছিল ও সমাবেশ করেছে পার্বত্য অধিকার ফোরাম ও বৃহত্তর পার্বত্য বাঙ্গালি ছাত্র পরিষদ।এই হত্যাকাণ্ডের জন্য পাহাড়ের আঞ্চলিক সংগঠন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট ইউপিডিএফ (প্রসীত খীসা সমর্থিতদের) দায়ী করে সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে বিচারের দাবি জানানো হয়। এছাড়া আগামীকাল ৬ মে থেকে খাগড়াছড়ি জেলায় ৭২ ঘন্টা হরতালের ঘোষণা দিয়েছে পার্বত্য অধিকার ফোরাম ও বৃহত্তর পার্বত্য বাঙ্গালি ছাত্র পরিষদ। 

পার্বত্য বাঙ্গালি ছাত্র পরিষদের একাংশের সভাপতি মোঃ মাইন উদ্দিন, সহ-সভাপতি মহি উদ্দিন,সাধারণ সম্পাদক এসএম মাসুম রানা প্রমুখ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন। এ সময় বক্তারা আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে প্রশাসন খুনিদের গ্রেফতারে ব্যর্থ হলে, খাগড়াছড়ি বসবাসরত সকলকে নিয়ে অসহযোগ আন্দোলনের ঘোষণা দেন। 

এর আগে শনিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় শহরের শাপ্লা চত্ত্বরে দুর্বৃত্তদের ব্রাশ ফায়ারে নিহত মাইক্রোবাসের ড্রাইভার মোঃ সজীব হত্যার প্রতিবাদ ও পরিবারকে ক্ষতিপূরণের দাবিতে মানববন্ধন করে খাগড়াছড়ি রেন্ট-এ কার চালক সমবায় সমিতি। এ সময় আগামী ৭ মে সোমবার খাগড়াছড়ি জেলায় কর্মবিরতি পালনের ঘোষণা দেয় তারা।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার ৩ মে উপজেলা পরিষদের সামনে দুর্বৃত্তদের গুলিতে নিহত হন রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান ও খাগড়াছড়ি জেলা আইনজীবি সমিতির সদস্য এডভোকেট শক্তিমান চাকমা। পরদিন শুক্রবার দুপুরে খাগড়াছড়ি-রাঙামাটি সড়কের বেতছড়ি মেজর পাড়া এলাকায় প্রতিপক্ষের ব্রাশফায়ারে নিহত হন মাইক্রোবাসের ড্রাইভার মো. সজীব ও ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট গণতান্ত্রিক (বর্মা গ্রুপ) প্রধান তপন জ্যোতি চাকমা বর্মাসহ পাঁচজন।

 

কিউএনবি/রেশমা/৬ই মে, ২০১৮ ইং/সকাল ৮:২৬