১৪ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ২:১৮

প্রতিবাদ করায় ছাত্রীর বাবার হাত ভেঙে দিল বখাটেরা

 

সারাদেশঃ রাজশাহীর তানোরে ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে (১৩) উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় তার বাবার হাত ভেঙে দিয়েছে বখাটেরা। রবিবার বিকেলে উপজেলার নড়িয়াল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। গতকাল সোমবার দুপুরে ভুক্তভোগী বাবা বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

মামলার সূত্রে জানা যায়, তানোর উপজেলার কলমা ইউনিয়নের নড়িয়াল দুরুল হাদিস ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে (১৩) মাদরাসা যাওয়ার পথে নড়িয়াল গ্রামের সাম্পা আলীর ছেলে শাকিল হোসেন (১৫) কুপ্রস্তাব দিয়ে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করে আসছে। গতকাল বিকেল ৪টার দিকে মাদরাসা ছুটির পর ওই ছাত্রীকে বাড়ি ফেরার পথে বখাটে শাকিল ও তার তিন সহযোগী হাত ধরে টানাহেঁচড়া করে। মেয়েটি চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে বখাটেরা পালিয়ে যায়।

ওই ছাত্রী বাড়ি গিয়ে তার বাবাকে বিষয়টি জানায়। এতে মর্মাহত বাবা বিকেলেই শাকিলসহ তার বন্ধুদের এ ধরনের আচরণ না করতে শাসিয়ে দেন। এ সময় বখাটে শাকিল ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। পরে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ওই ছাত্রীর বাবা খড়িবাড়ী বাজার থেকে ভ্যানযোগে বাড়ি ফেরার পথে বখাটে শাকিল ও তার দুই সহযোগী হাবিবুর রহমান (১৪) ও ফয়সাল হোসেন (১৫) তাকে এলোপাতাড়ি মারধর করে একটি হাত ভেঙে দেয়। স্থানীয় লোকজন আহত অবস্থায় তাঁকে তানোর স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করে।

নড়িয়াল দুরুল হাদিস ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার সুপার আব্দুর রহিম বলেন, ‘ওই ছাত্রী শান্ত প্রকৃতির মেয়ে। বেশ কিছুদিন থেকে শাকিল ও তার বন্ধুরা তাকে উত্ত্যক্ত করে আসছে। আমরা এর বিচার চাই।’ ছাত্রীর বাবার লিখিত অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করেছেন তানোর থানা ওসি রেজাউল ইসলাম।

কিউএনবি/অদ্রি আহমেদ/২৪.০৪.১৮/ সকাল ৭.০০