ব্রেকিং নিউজ
১৩ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং | ২৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৫:৩৬

মঠবাড়িয়ায় গৃহবধূ মমতাজ হত্যার দায়ে দুই জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

 

মোঃ মামুন হোসেন,পিরোজপুর প্রতিনিধি : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার চিত্রা গ্রামের মমতাজ বেগম (২০) নামে এক গৃহবধূকে হত্যার দায়ে অভিযুক্ত দুই হত্যাকারীকে যাবজ্জীবন কারাদ-াদেশ দিয়েছে আদালত।

পাশাপাশি দন্ডিতদের ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৬ মাসের কারাদ- দেওয়া হয়েছে।আজ সোমবার দুপুরে পিরোজপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারিক হাকিম এস. এম জিল্লুর রহমান এ দন্ডাদেশ দেন।আদালত মামলার চূড়ান্ত রায় ঘোষনার সময় আসামীরা অনুপস্থিত ছিল।

দন্ডিত আসামী আল-আমিন সরদার ওরফে আকাশ (২৮) মঠবাড়িয়া উপজেলার হোতাখালী গ্রামের বাবুল হোসেনের ছেলে এবং মুকুল আক্তার (২৭) মঠবাড়িয়া উপজেলার জাহাঙ্গীর মৃধার মেয়ে।বাদী পক্ষের আইনজীবী এ্যাডভোকেট জহিরুল ইসলাম জানান, ২০০৯ সালের ২১ নভেম্বর সন্ধ্যায় মঠবাড়িয়া উপজেলার চিত্রা গ্রামের ফারুক ফরাজীর স্ত্রী মমতাজ বেগম (২০) কে আসামী আল-আমিন ও মুকুল আক্তার মিলে জরুরী কাজের কথা বলে গৃহবধূ মমতাজ বেগমকে পাশ্ববর্তী ভান্ডারিয়া উপজেলার গোলবুনিয়া গ্রামের কাদের হাওলাদারের ধান ক্ষেতে নিয়ে যায়। সেখানে আসামীরা ওই গৃহবধূকে শ্বাস রোধ করে হত্যা করে লাশ ধানক্ষেতে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় নিহত গৃহবধূ মমতাজের স্বামী ২০০৯ সালের ২২ নভেম্বর বাদী হয়ে ভান্ডারিয়া থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। এরপর পুলিশ মামলায় অভিযুক্ত আল-আমিন ও তার সহযোগি মুকুলকে গ্রেপ্তার করে। পরে তারা জামিনে মুক্ত হয়ে পলাতক হয়।এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ২০১০ সালের ৮ ফেব্রুয়ারী আদালতে আসামীদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

 

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/২৩শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং/সন্ধ্যা ৭:৫৯