২২শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১২:০৬

গাইবান্ধায় তিস্তা নদীর দুর্গম চরে পাওয়ার প্লান্ট স্থাপন আনছার ক্যাম্পে অগ্নিসংযোগ : ৪ পুলিশ সহ আহত ১০

 

জাহিদ খন্দকার,গাইবান্ধা : গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে তিস্তা নদীর চরাঞ্চলে সৌর বিদ্যুতের পাওয়ার প্লান স্থাপন নিয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দু পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া সংঘর্ষ ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। এঘটনায় ৪পুলিশ সহ আহত হয়েছে ১০ জন ।

সুন্দরগঞ্জ উপজেলার তারাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম জানান,সরকারী ভাবে সুন্দরগঞ্জের চরখোদ্দার্ ও লাটশালার চরে সৌর বিদ্যুতের পাওয়ার প্লান্ট স্থাপনের সিন্ধান্ত নেয়া হয়।সেই অনুযায়ী তিস্তা নদীর চর খোর্দ্দা ও লাটশালার চরে জায়গা নির্ধারন করা হয়।

তবে সরকারী ভাবে এ প্রকল্পটি খাস জমিতে স্থাপনের কথা থাকলেও খাস জমি ছাড়াও ব্যক্তি মালিকানাধীন জমিতে প্লান্ট স্থাপনের জন্য আনছার ক্যাম্প বসানো হয়। ফলে গ্রামবাসীর সাথে পাওয়ার প্লান কর্মকর্তাদের সাথে মতবিরোধ চলে আসছিলো। এই প্লান্টেশনের জন্য ওই ক্যাম্পে মালামাল ও কাজের জন্য ৫০ জন আনছার ও প্লান্টের অন্যান্য কর্মকর্তা কর্মচারীরা বসবাস করে আসছে।মঙ্গলবার গ্রামবাসীর সাথে পাওয়ার প্লান কর্মকর্তাদের তর্কবিতর্ক হয়।

এসময় আনছার বাহিনী গ্রামবাসীদের প্রতিরোধ করতে গেলে সংঘর্ষ শুরু হয়। গ্রামবাসী সংগঠিত হয়ে আনছার ক্যাম্পে আগুন ধরিয়ে দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছিলে গ্রামবাসী তাদের জমির দাবীতে পুলিশ ও আনছার সহ কর্মকর্তাদের অবরুদ্ধ করে রাখে।এসময় পুলিশ ও আনছার বাহিনী রাবার বুলেট ছুড়ে ছত্রভঙ্গ করে ।

এতে ৪ পুলিশ সহ ১০ জন গ্রামবাসী আহত হয়েছে।গাইবান্ধার জেলা পুলিশ সুপার মান্নান মিয়া জানান পরিস্তিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

 

 

কিউএনবি/সাজু/১০ই এপ্রিল, ২০১৮ ইং/রাত ৯:৫৭