২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সন্ধ্যা ৬:০০

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে ৫শ’ বছরের ঐতিহ্যবাহী কালি পূজায় লাখো মানুষের ঢল

 

শেখ মোহাম্মদ রতন,স্টাফ রিপোর্টার : মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলায় ৫শ’ বছরের ঐতিহ্যবাহী কালি পূজা শুরু হয়েছে। আগামী ৭ দিন পর্যন্ত চলবে এ পুজা।

প্রতিবছরের ন্যায়, এ বারো গত মঙ্গলবার থেকে শুরু হয়েছে হিন্দু সম্প্রদায়ের ঐতিহাসিক ৫শ’ বছরের ঐতিহ্যবাহি শেখরনগর কালি মন্দিরের শ্রী শ্রী মা রক্ষা কালী পূজা। এ মেলায় লাখো মানুষের ঢল লক্ষনিয়।উপজেলার শেখরনগর ইউনিয়নে ইছামতি নদীর প্রাঙ্গনে কয়েকটি গ্রাম নিয়ে এই মেলা বসেছে।

শেখরনগর ঋষি সমিতির উদ্যোগে বাংলা ৯০১ সন হতে এ পূজা উদযাপিত হচ্ছে। কালিপূজাকে সামনে রেখে সিরাজদিখানে হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে উৎসব মুখর পরিবেশ বিরাজ করছে ।কালিপূজাটিকে কেন্দ্র করে মেলার আয়োজন হলেও তা আর কেবলই হিন্দু সম্প্রদায়ের মেলা হিসেবে আবদ্ধ থাকে না। রূপ নেয় এক সর্বজনীন উৎসবে।পূজার দু-চার দিন আগেই স্বামী ও শশুর বাড়ির লোকজন নিয়ে বাবার বাড়িতে মেয়েরা বেড়াতে আসে এ পুজায়।

এক দিনের মেলা হলেও মেলা চলবে ৭ দিনেরর ও বেশী দিন ধরে । মেলায় দেশ বিদেশের অনেক ভক্তবৃন্দ আসে। এই কালিপুর্জা দেখতে ভারত, নেপাল, থেকে ভক্ত বৃন্দ আসে।মেলাকে কেন্দ্র করে সিরাজদিখানের জনপদ হিন্দু মুসলমানের মধ্যে ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে এক সেতু বন্ধন সৃষ্টি করে ।কালি মন্দিরের সভাপতি শ্রী পলু চন্দ্র দাস জানান, দিনটিকে ঘিরে প্রায় লক্ষাধিক মানুষের বিচরণ ঘটে মেলা প্রাঙ্গনে প্রিয় মানুষের সান্নিধ্য পাবার জন্য।

বুধবার ভোর ৫ টা থেকে চলে পাঠাবলি। এদিন প্রায় ৪ হাজারেরও বেশী পাঠাবলি হয়।

এই মেলাটি সিরাজদিখানের ঐতিহ্যবাহী মেলা ৫শ বছরেরও বেশী সময় থেকে শুরু হয়ে আজ অব্দি অব্যাহত রয়েছে।মেলায় শিশুদের জন্য নাগর দোলা, হর্স রেস রেলওয়ের ভ্রমন ব্যবস্থাও রয়েছে। মেলাতে বিভিন্ন ধরনের গৃস্থালী কাজের লোহার তৈরী দা, কোড়াল, বুঁটি, কাচি, হাসুয়া, কোদাল ও পাতি, এ ছাড়াও বাঁশের তেরী গৃহ বধুদের জন্য জালুন কোলো ডালা ইদ্যাদি পাওয়া যাচ্ছে। বিভিন্ন মিষ্টি সামগ্রী পাওয়া যাচ্ছে। কসমেট্রিকস সামগ্রী সহ বিভিন্ন প্রসাধনী পসরা সাজানো হয়েছে এ মেলায় ।

নিরাপত্তার বিষয়টি চিন্তা করে জেলার সহকারি পুলিশ সুপার (সিরাজদিখান সার্কেল) আসাদুজ্জামান বলেন,‘ কালী পূজার মেলা কে ঘিরে সার্বিক নিরাপত্তার জন্য মুন্সীগঞ্জ জেলা পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোষাকেও বিভিন্ন ইউনিট থেকে এখানে চার শতাধিক পুলিশ ফোর্স কাজ করে যাচ্ছে এবং ১০ টি সিসি ক্যামেরা লাগানো হয়েছে।

কিউএনবি/রেশমা/৪ঠা এপ্রিল, ২০১৮ ইং/সকাল ৮:৪২