১৬ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৭:৪০

টেকনাফে মদ্যপ পল্লী চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসায় প্রাণ হারালো প্রসূতি তাসলিমা

 

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন, কক্সবাজার : কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের আমতলী গ্রামে মদ্যপ অবস্থায় গ্রাম্য ডাক্তারের ভুল চিৎিসায় তছলিমা আকতার নামের এক প্রসূতির মর্মান্তিক হয়েছে। এ ঘটনায় মদ্যপ অবস্থায় পল্লী চিকিৎসককে আটক করেছে পুলিশ। আটক মদ্যপ ডা: সুরেশ (৩৫) চট্টগ্রামের লোহাগাড়া কলাউজান এলাকার পরিতোষের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানাগেছে, টেকনাফ উপজেলার , হোয়াইক্যং ইউনিয়নের আমতলী গ্রামের হেলাল উদ্দিন স্ত্রী তছলিমা আকতার (১৯)গত ৯দিন পূর্বে ১ টি ছেলে সন্তান প্রসব করেন। প্রসবের পর তার শ্বাস কষ্ট, কাশের সাথে রক্ত আসা এবং শরীরে পানি জমানোর কারণে ৩ এপ্রিল ভোর রাত সাড়ে ২টার দিকে হোয়াইক্যং বাজারে অবস্থানরত পল্লী চিকিৎসক সুরেশ কান্তি নাথকে নিয়ে যান তার বাড়িতে।

ওই সময় পল্লী চিকিৎসক সুরেশ তাকে রাসিলিকন, ডিকট, ড্রাইক্লোপেনাক, রেনিসন ইনজেকশনসহ অন্যান্য ঔষধ দেয়। ওষুধগুলো খেয়েই তছলিমা তার স্বামী ও মাতার সামনে সে রাতে চটপট করে মারা যান।

টেকনাফ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রনজিত কুমার বড়ুয়া জানান, ঘটনার সংবাদ পেয়ে দ্রুত হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁড়ির এসআই শাহজান ভূইয়াকে ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়। ঘটনাস্থলে গেলে প্রসূতির মা ও স্বামী লোকজনের সামনে পুলিশকে অভিযোগ করেন, পল্লী চিকিৎসক সুরেশের ভুল চিকিংসার কারনে তসলিমার মৃত্যু হয়েছে।

লাশ পুলিশ উদ্ধার করেছে এবং ডা: সুরেশকে আটক করে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়।ওসি আরো জানান, ঘটনা স্থলে পল্লী চিকিৎসক সুরেশকে মদ্যপ অবস্থায় আটক করা হয়। এঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

 

 

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/৩রা এপ্রিল, ২০১৮ ইং/রাত ৯:২৫